মঙ্গলবার, ১৭ মার্চ, ২০২০

মধ্যপ্রদেশের আরও ২০ বিধায়ক কংগ্রেস ছাড়ছেন?

মধ্যপ্রদেশে আস্থা ভোটের বিষয়টি সুপ্রিম কোর্টে বিচারাধীন থাকলেও কংগ্রেস ত্যাগী বিক্ষুব্ধ বিধায়করা যে বিস্ফোরক দাবি করতে শুরু করেছেন তা সত্য হলে রাজ্যে কংগ্রেসের ক্ষমতা ধরে রাখা কার্যত দিবাস্বপ্নে পরিণত হবে। সব আশা ছেড়ে দিয়ে বিধানসভায় বিরোধীদের আসনে গিয়ে বসতে হবে টিম কমলনাথকে। বিক্ষুব্ধ বিধায়কদের দাবি, কমলনাথ সরকারে থাকা আরও ২০জন বিধায়ক নাকি যে কোনও সময় দল ছাড়ার জন্য তৈরি। শুধু তাই নয়, আগামী কয়েকদিনের মধ্যে তাঁরা বিজেপিতে যোগ দেওয়ার কথাও চিন্তা-ভাবনা করছেন। বলাবাহুল্য, এই দাবি সত্যি হলে বড় বিপদ অপেক্ষা করে রয়েছে কমলনাথদের সামনে। 

তবে একটি বিষয় কার্যত স্পষ্ট হয়ে গেল, কংগ্রেসের কমলনাথ ব্রিগেড যখন সরকার বাঁচাতে মরিয়া চেষ্টা চালাচ্ছেন, তখন অন্যদিকের বিরোধী পক্ষরা নাগাড়ে প্রয়াস চালাচ্ছে কংগ্রেসে আরও বড় ভাঙন ধরানোর জন্য। ফলে মধ্যপ্রদেশের রাজনীতিতে এখন ‘পেছনের দরজা’র লড়াই জমে উঠেছে। কংগ্রেস থেকে ইস্তফা দেওয়া ২২জন বিধায়ক ইতিমধ্যেই বেঙ্গালুরুতে এসে পৌঁছেছেন। সেখানে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তাঁরা সাফ জানিয়েছে, কংগ্রেসকে সমর্থনের কোনও প্রশ্নই ওঠে না, তাতে যা পরিণতি হয় হোক। যে কোনও পরিণতির মুখোমুখি হতে তাঁরা সম্পূর্ণ তৈরি। সম্প্রতি শোনা যাচ্ছিল, এই ২২জন বিধায়কের মধ্যে বেশ কয়েকজন নাকি বিজেপিতে যোগ দিতে চান না, কমলনাথের সঙ্গেই থাকতে চান। সেই দাবিও এদিন সম্পূর্ণ উড়িয়ে দিয়েছেন এই ২২ বিক্ষুব্ধ বিধায়ক। তাঁদের সাফ কথা, ‘জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়াই আমাদের নেতা। আমরা বহু বছর তাঁর সঙ্গে রাজনীতি করছি। আমাদের অনেকেই রাজনীতিতে রয়েছেন শুধুমাত্র তাঁর (জ্যোতিরাদিত্য) জন্যই। তবে বিজেপিতে যোগ দেওয়ার বিষয়টি নিয়ে আমরা এখনও ভাবনা-চিন্তা করছি। কেন্দ্রের পুলিশের থেকে যদি আমরা নিরাপত্তা পাই, আমরা তাহলে মধ্যপ্রদেশে যাব এবং বিষয়টি নিয়ে ভাবব।’ 

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only