মঙ্গলবার, ২৪ মার্চ, ২০২০

এবছর হজ হচ্ছে না, ইঙ্গিত সৌদি সরকারের

পু্বের কলম, রিয়াধ: করোনা ভাইরাস বা কোভিড-১৯ এরজন্য সৌদি আরব সরকার ইতিমধ্যেই উমরাহ এবং কাবা শরীফ তাওয়াফ বন্ধ করে দিয়েছে। কাবা শরীফ এবং মসজিদুল নববীতে খুব অল্পসংখ্যক মুসল্লিকে নামায পড়ার অনুমতি দেওয়া হয়েছে। এখন সবার মনেই প্রশ্ন, আসন্ন হজ সম্পর্কে সৌদি সরকার কী সিদ্ধান্ত নেবে।

তবে অবস্থাদৃষ্টে মনে হচ্ছে, সৌদি সরকার এবছর হজের জন্য অনুমতি না দেওয়ার দিকেই এগোচ্ছে। সৌদি সরকার ইতিমধ্যেই এমন বেশ কিছু ইঙ্গিত দিয়েছে যাতে মনে হবে এবছরের হজ তারা বাতিল করতে পারে। সৌদি সরকার বিভিন্ন দেশের হজ কম্পানি এবং হজ ও উমরাহ এজেন্সিকে বলেছে, তারা যেন হজের জন্য মক্কায় কোনও হোটেল, মুয়াল্লিম (হজের নিয়মাবলী সম্পর্কে পথ নির্দেশক) এবং বিমানের টিকিট প্রভৃতি বুক করা বা সংরক্ষিত করা থেকে বিরত থাকেন। সাধারণত হজের জন্য সরকারি ও বেসরকারি পর্যায়ে এইসব সংরক্ষণ বহু আগে থেকেই শুরু হয়ে যায়। ভারতেও এই কাজের প্রস্তুতি বহু পূর্বেই শুরু হয়ে গেছে। ওয়াকিফহাল মহল বলছেন,  সাম্প্রতিক এই ঘোষণার দ্বারা সৌদি আরবের সরকার এবছর যে বিশ্ব মুসলিমের হজ পালন হবে না, সেদিকেই ইঙ্গিত করেছে। উল্লেখ্য, এর আগে কখনই মক্কা ও মদিনায় হজ নিয়ে এই ধরণের পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়নি। উমরাহ ও তাওয়াফ বন্ধের ঘটনাও ইসলামের ইতিহাসে একটি বিরল পদক্ষেপ। এবছর এপ্রিল মাসের শেষ দিকে পবিত্র রমজান মাস শুরু হতে চলেছে। রমজান মাসে উমরাহ করা বিশেষত রমজানের শেষ ১০দিনে দুনিয়ার মুসলিমদের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ ইবাদৎ বলে বিবেচিত হয়। এবার করোনা ভাইরাসের জন্য রমযান মাসে মুসলিমদের সেই সুযোগ দেওয়া হবে না বলে সৌদি সরকারের কাছ থেকে সব ধরনের ইঙ্গিত পাওয়া গেছে।
স্বভাবতই বিভিন্ন দেশের বহু মুসলিমই এই বাস্তব সম্ভাবনাকে সামনে রেখে নিজেদের হতাশা ব্যক্ত করেছেন।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only