শনিবার, ১৪ মার্চ, ২০২০

সাত মাস পর ওমর-ফারুক সাক্ষাৎ, কী কথা হল জানেন?




পুবের কলম ওয়েব ডেস্ক:  শুক্রবারই কেন্দ্রের এক নির্দেশিকায় বন্দিদশা ঘোচানো হয় জম্মু-কাশ্মীরের প্রবীণ নেতা ফারুক আবদুল্লাহর। গৃহবন্দি রাখা হয়েছিল তাকে। রেহাই পাওয়ার পর শনিবার তিনি সোজা চলে যান ছেলে ওমর আবদুল্লাহর সঙ্গে দেখা করতে। শ্রীনরের একটি সাব-জেলে আটক রয়েছেন ওমর। সেখানে গিয়ে তার সঙ্গে দেখা করেন ফারুক। দীর্ঘ সাত মাস পর এই প্রথম সাক্ষাৎ হল পিতা-পুত্রের।

উপত্যকায় ৩৭০ রদের পর আটক করা হয় ফারুক আবদুল্লাহকে। জননিরাপত্তা আইনে (পিএসএ) আটক করা হয় ফারুককে। শুক্রবার কেন্দ্রের এক নির্দেশিকায় ফারুকের উপর থেকে পিএসএ প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়। তারপরই রেহাই দেওয়া হয় ফারুককে। ৮২ বছরের ফারুক জন্মু-কাশ্মীর প্রশাসনের কাছে অনুরোধ করেন ছেলের সঙ্গে দেখা করার অনুমতি দেওয়ার জন্য। তার আবেদন মঞ্ভুর করে প্রশাসন। সেইমতো এদিন ছেলে ওমরের সঙ্গে দেখা করেন ফারুক। প্রশাসন সুত্রে জানা গিয়েছে, প্রায় এক ঘণ্টা তাদের মধ্যে কথা হয়। 

জানা গিয়েছে, দেখা হতেই আবেগ বিহ্বল হয়ে পড়েন বাবা-ছেলে। তাদের মধ্যে ঠিক কি কথা হয়েছে সে সম্পর্কে অবশ্য কিছু জানানো হয়নি। তবে, মুখ ভর্তি লম্বা সাদা দাড়ির ওমরকে দেখে ফারুক যে কিছুটা অবাকই হবেন তা বালবাহুল্য। কারণ ওমরকে সবসময় কেতাদুরস্ত ক্লিনশেভঅবস্থাতেই দেখা যায়। গৃহবন্দি থাকার সময় তার সাদা লম্বা দাড়ির ছবি দেখে অনেকে তাকে প্রথমে চিনতেই পারেনি। তার সেই ছবি সোশ্যাল মিডিয়াতেও ভাইরাল হয়। উল্লেখ্য, গত বছর ৫ আগস্ট ফারুক আবদুল্লাহ, তার ছেলে ওমর আবদুল্লাহ ও পিডিপি নেত্রী মেহবুবা মুফতিকে আটক করে জম্মু-কাশ্মীর প্রশাসন।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only