শুক্রবার, ২৭ মার্চ, ২০২০

কেরল থেকে মুর্শিদাবাদের পথে শ্রমিকরা, খাইয়ে, স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে লরিতে তুলে দিল পুলিশ


পুবের কলম ওয়েব ডেস্ক, চন্দ্রকোনাঃ কেরলে ফলের বাগানে কাজ করতেন মুর্শিদাবাদের শ্রমিকরা, করণা ভাইরাস সংকটে ২১ মার্চ থেকে বাড়ি ফেরা শুরু করেছিলেন। বিভিন্ন রাজ্যকে বিভিন্ন পদ্ধতিতে পার হতে হয়েছে ৷ বৃহস্পতিবার রাতে পশ্চিম মেদিনীপুরের চন্দ্রকোনা রাজ্যসড়ক ধরে সারি দিয়ে হেঁটে যাওয়ার সময় টহলরত পুলিশ প্রশাসনের নজরে পড়ে ৷ প্রশাসনের উদ্যোগে স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে খাবারের ব্যবস্থা করা হয়।রাতেই পণ্যবাহী গাড়িতে করে পাঠানো হলো মুর্শিদাবাদে।

জানা গিয়েছে মুর্শিদাবাদের জলঙ্গি এলাকার বাসিন্দা ১৫ জন শ্রমিক, কেরলের এরনাকুলামে একটি ফলের বাগান তথা ফার্মে কাজ করতেন। দেশে করোনা সংক্রমণ সম্ভাবনা দেখে ওই ফার্ম বন্ধ করে দেওয়া হয়। ২১ মার্চ থেকে ওই শ্রমিকেরা বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা দেন ট্রেনে। সেখান থেকে ট্রেনে করে চেন্নাই পর্যন্ত পৌঁছালে ২২ মার্চ রেল কর্তৃপক্ষ জানিয়ে দেয় এই ট্রেন আর আগে যাবে না। ফলে সেখানে দিনভর অপেক্ষা করার পর পুনরায় একটি টুরিস্ট বাস ভাড়া করে অন্ধ্রপ্রদেশ পর্যন্ত পৌঁছান।ওই রাজ্যের সীমানাতে পৌঁছাতে টোলগেটে অন্য রাজ্যের বাস-কে আটকে দেওয়া হয় ২৩ মার্চে। এরপর অন্ধ্রপ্রদেশে প্রবেশ করে ২৪ মার্চ সেখান থেকে আরও একটি গাড়ি ভাড়া করে ওড়িষ্যাতে সীমানাতে পৌঁছান। সেখানে ওড়িষ্যা সীমান্ত থেকে একটি গাড়ি আবার ভাড়া করে ওড়িষ্যার একটি শহরে প্রবেশ করে আশ্রয় নেন৷ ২৫ মার্চ রাতে সেখান থেকে একটি পণ্যবাহী লরি ভাড়া করে ২৬ মার্চ বৃহস্পতিবার ভোরে তারা সকলে পৌঁছান মেদিনীপুর শহর সংলগ্ন ধর্মা এলাকায়। এরমাঝে বিভিন্ন এলাকায় তাদের করোনা ভাইরাস পরীক্ষা করেছে স্থানীয় প্রশাসন৷

মেদিনীপুরে পৌঁছেও জোটেনি কোনো খাবার৷ ফের মেদিনীপুর শহর থেকে মুর্শিদাবাদ যাওয়ার কোন গাড়ি না পেয়ে রাজ্য সড়ক ধরে বাড়ির পথে হেঁটে রওনা দেন। সারাদিন হেঁটে ওই শ্রমিকরা রাস্তায় কোন খাবার দোকান পর্যন্ত পাননি বলে জানান। চন্দ্রকোনা টাউন এলাকায় বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে দশটা নাগাদ রাজ্য সড়ক ধরে সারি দিয়ে হেঁটে যাওয়ার সময়ে টহলরত চন্দ্রকোনা ২ ব্লকের বিডিও শাশ্বত প্রকাশ লাহিড়ী-র নজরে পড়ে।তাদের সেখানেই আটকে জিজ্ঞাসাবাদের পর সব জানতে পেরে বসিয়ে খাওয়ানোর ব্যবস্থা করা হয়। সেইসঙ্গে স্বাস্থ্যপরীক্ষার টিম পাঠিয়ে তাদের পরীক্ষা করা হয়।এর পর তাদের লরি করে গন্তব্যে পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only