মঙ্গলবার, ১৯ মে, ২০২০

শিলিগুড়িতে বসেছে বিনে পয়সার হাট


রুবাইয়া জেসমিন জুঁই, শিলিগুঁড়ি

শিলিগুড়ির হাতিয়া ডাঙার নদীর চরে দেখা গেলো এক অভিনব হাট।প্রয়োজনীয় সমস্ত শাক-সবজিই ছিল।কিন্তু তার ন্য কোনও টাকা-পয়সার প্রয়োজন হয়নি।সমাজসেবী রাকেশের দত্তের তৈরি করা ইউনিক সোসাইটির তরফ থেকে সমাজের দিন আনা দিন খাওয়া সাধারণ মানুষগুলোর জন্য বিনা পয়সার বাজার বসানো হয়েছে হাতিয়া ডাঙার নদীর চরে। 

এই বাজারে ছিল জন প্রতি ৪ কেজি চাল, ২৫০ গ্রাম ডাল, ২৫০ গ্রাম সোয়াবিন, ২ কেজি আলু, ৫০০ গ্রাম কোয়াশ, ১ কেজি বাঁধাকপি, ২৫০ গ্রাম সর্ষে তেল, লবণ ১ কেজি। এছাড়া লঙ্কা, পেয়াজ, ভেন্ডি ইত্যাদিও ছিল। এই বাজার থেকে স্থানীয় বাসিন্দারা নিজের ইচ্ছেমতো বিনে পয়সায় প্রয়োজনীয় দ্রব্যসামগ্রী নিয়ে যান।করোনা পরিস্থিতিতে এভাবেই প্রতিদিন বিনে পয়সার বাজার খুলে বসেছে রাকেশের হাত ধরে ইউনিক সোশ্যাল ওয়েল ফেয়ার সোসাইটি।

উত্তরবঙ্গ এর আগেই বহু মানবিকতার পরিচয় দিয়েছে।এবারে নজির হয়ে রইল রাকেশের উৎসর্গের গল্প। এই উৎসর্গ সমাজের প্রতিটা অসহায়, অভুক্ত অনাহারে থাকা মানুষগুলোর জন্য।শুধু লকডাউনেই নয় লকডানের বহুদিন আগে থেকেই এই তরুণ রাস্তার পাশে অভুক্তদের মুখে তুলে দেয় খাবার, যারা অনাহারে থাকে তাদের দরজায় পৌঁছে দেয় খাবার সামগ্রী। রাকেশ এভাবেই ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে চেষ্টা করে যায় সমাজের অভুক্তদের মুখে হাসি ফোটাতে।বিনে পয়সার হাট বাদেও লকডাউনে আরও নানারকম কর্মসূচি করে রাকেশ।তার এই উদ্যোগে স্বাভাবিকভাবেই সাধারণ মানুষ খুশি।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only