শনিবার, ১৬ মে, ২০২০

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থায় ‘সামান্য পরিমাণ অর্থ দিতে রাজি ট্রাম্প প্রশাসন’




















পুবের কলম ওয়েব ডেস্ক:
বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থায় আগের তুলনায় সামান্য পরিমাণ অর্থ দিতে রাজি হয়েছে  মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রশাসন।
করোনা ইস্যুতে ডব্লিউএইচও-কে ‘চিনঘেঁষা’ অ্যাখ্যা দিয়ে অর্থায়ন বন্ধ করে দেওয়ার ঘোষণার একমাস পর এমন সিদ্ধান্তের কথা জানানো হলো।
ট্রাম্প প্রশাসনের খসড়া একটি নথির বরাত দিয়ে শুক্রবার রাতে ফক্স নিউজের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে। খবর বার্তা সংস্থা রয়টার্স।
ফক্স নিউজ জানিয়েছে, খসড়া চিঠিটিতে ‘চীনের অর্থায়নের পরিমাণ পর্যালোচনা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থায় অর্থ দিতে ট্রাম্প প্রশাসন রাজি হয়েছে’ লেখা ছিল।
গত ১৪ এপ্রিল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে (ডব্লিউএইচও) ‘চিনঘেঁষা’ অ্যাখ্যা দিয়ে ট্রাম্প  মার্
কিন যুক্তরাষ্ট্রের অর্থায়ন বন্ধের নির্দেশ দিয়েছিলেন।
ডব্লিউইএইচও-র কর্মকর্তারা অবশ্য শুরু থেকেই তাদের বিরুদ্ধে ওঠা এসব অভিযোগ অস্বীকার করে এসেছেন।
অবশ্য অর্থায়ন বন্ধের আগে যুক্তরাষ্ট্রই বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থায় সবচেয়ে বেশি অর্থ দিত বলে জানিয়েছে রয়টার্স।
গত বছর সংস্থাটিকে ৪০ কোটি ডলার দিয়েছিল তারা, যা ডব্লিউএইচও-র মোট বাজেটের প্রায় ১৫ শতাংশ।
ফক্স নিউজের দেখা নথি অনুযায়ী, ট্রাম্প প্রশাসন যদি এবার চিনের অর্থায়নের সমপরিমাণ বা এর কাছাকাছি তহবিল বরাদ্দ করে, তাহলেও এর পরিমাণ দাঁড়াতে পারে সর্বোচ্চ ৪০ কোটি ডলারে। এ অংক গত বছর দেওয়া অর্থের দশভাগের একভাগ।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only