বৃহস্পতিবার, ১৪ মে, ২০২০

বাসের ন্যূনতম ভাড়া বেড়ে হতে পারে ২০ টাকা



পুবের কলম প্রতিবেদক: আগামী সপ্তাহ থেকেই রাজ্য জুড়ে রাস্তায় নামতে চলেছে বেসর কারি বাস ও মিনিবাস।  তবে বাস গুলিতে যাত্রীর সংখ্যা সীমিত করে দেওয়ায়  বাসের ভাড়া বাড়তে পারে তিনগুণ বা তারও বেশি।   সাধারণ বাসের ক্ষেত্রে ন্যূনতম ভাড়া হয় সাত টাকা। কিন্তু আগামী সপ্তাহ থেকে  ন্যূনতম ভাড়া বেড়ে হতে চলেছে ২০ -২৫ টাকা। অন্যদিকে, মিনিবাসের ক্ষেত্রে ভাড়া বাড়তে পারে  ৩.৭৫ গুন।  বর্তমানে মিনিবাসের ভাড়া ন্যূনতম ৮ টাকা। কিন্তু যাত্রী সংখ্যা কম থাকার কারণে আগামী সপ্তাহ থেকে  তা বাড়িয়ে ৩০ টাকা করা হবে।

এরপরে ধাপে ধাপে বাসের ভাড়া বাড়বে একই হারে। সাধারণ বাসের ক্ষেত্রে প্রতি ৪ কিলোমিটারে কিলোমিটারের ৫ টাকা করে ভাড়া বাড়বে । মিনিবাসের ক্ষেত্রে ত আরো কিছুটা বেশি। প্রসঙ্গত এর আগের দিনই বাস মালিকদের সঙ্গে বৈঠকে পরিবহনমন্ত্রী তাদের ভরা ঠিক করতে বলেছিলেন। কিন্তু কত ভাড়া নেওয়া হবে তা নিয়ে বিভিন্ন সংগঠনের মধ্যে মতভেদ তৈরি হয়েছে। বাস মালিকদের সংগঠন কাউন্সিল অফ বাস সিন্ডিকেটের তরফ থেকে সাধারণ বাসের ক্ষেত্রে ন্যূনতম ২০ টাকা ভাড়া ঠিক করা হয়েছে। আবার ওয়েস্টবেঙ্গল বাস-মিনিবাস ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে ন্যূনতম ২৫ টাকা ভাড়া ঠিক করা হয়েছে। তবে যাই হোক বেসরকারি বাসের ন্যূনতম ভাড়া কুড়ি টাকা বা তার উপরে থাকবে বলেই মনে করা হচ্ছে।  সংগঠনগুলোর পক্ষ থেকে এই ভাড়ার তালিকা আজ শুক্রবার পরিবহনমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীর কাছে তুলে দেওয়া হবে। এরপর মন্ত্রী র ছাড়পত্র পেলেই আগামী সপ্তাহের প্রথম বা মাঝামাঝি সময় থেকে বাস চলাচল শুরু করবে।

 বাসমালিকদের হিসেবে অন্যান্য সময় একটি সাধারণ বাস দৈনিক ৬০০ জন যাত্রী বহন করত।কিন্তু লক ডাউন এর কারণে যাত্রীসংখ্যা সীমিত করে দেওয়ায় এখন তা কমে হবে প্রায় ২০০ জন। তাই বাস মালিকদের দাবি এই পরিস্থিতিতে বাস ভাড়া বাড়ানো না হলে তাদের পক্ষে বাস চালানো সম্ভব হবে না।


প্রসঙ্গত, রাজ্য সরকার অনেক আগেই মালিকদের বেসরকারি বাস চালানোর নির্দেশ দিয়েছিল। সেই সঙ্গে জানানো হয়েছিল যে ২০ জনের বেশি যাত্রী নিয়ে বাস চালানো যাবে না। লোকসানের আশঙ্কায় সেই কারণে বাস চালাতে রাজি হননি বেসরকারি বাস মালিকরা। এরপরে বাসভাড়া বাড়ানোর দাবি জানান মালিকরা। তাদের সেই দাবিতে সায় দিয়ে বেসরকারি বাসের ক্ষেত্রে ভাড়া নির্ধারণ করার দায়িত্ব বাস মালিকদের  হাতে তুলে দেয় রাজ্য সরকার। এদিকে বুধবার থেকে কলকাতার ১৫টি রুটে সরকারি বাস চলা শুরু করেছে।


সমস্ত নিয়ম মেনে এবং সামাজিক গুরুত্ব বজায় রেখে বাস চলবে বলে জানিয়েছেন বাস মালিকরা।  সকাল সাতটা থেকে  সন্ধ্যে ৭ টা পর্যন্ত প্রতিদিন ১২ ঘণ্টা করে বাস চলবে। জানা গিয়েছে, রাজ্য সরকার বাসের ট্যাক্স ও ফিট সার্টিফিকেট ৬ মাসের জন্য মুকুব করছে। লকডাউন উঠে গেলে সেদিন থেকে যাতে ইনসিওরেন্স মুকুব করে তার জন্যও দাবি জানাবে বাস সংগঠনগুলি।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only