শুক্রবার, ১৫ মে, ২০২০

প্যাকেজ আর জ্যাকেট একরকম হয়ে গেছে, প্রধানমন্ত্রীকে খোঁচা পার্থর (ভিডিয়ো)


পুবের কলম ওয়েব ডেস্ক: প্রধানমন্ত্রীর করোনা প্যাকেজকে কটাক্ষ করলেন রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী তথা তৃণমূল মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়। পরপর তিনদিন তিন দফায় করোনা প্যাকেজ ঘোষণা করেছেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন। শুক্রবার এই নিয়ে প্রতিক্রিয়া দিতে গিয়ে কেন্দ্রের প্যাকেজের বাস্তবতা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করলেন তিনি। প্রথমদিন সাংবাদিক সম্মেলন করে, কেন্দ্রের প্যাকেজকে অশ্ব ডিম্ব আখ্যা দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। 

রাজ্যের অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্র বলেছিলেন, ১০ শতাংশ নয়, মাত্র 2 শতাংশের প্যাকেজ ঘোষণা করেছে কেন্দ্র ‌ এদিন এই দুই বক্তব্যের সঙ্গে সঙ্গতি রেখে পার্থ চট্টোপাধ্যায় বললেন, রোজই ঘোষণা হচ্ছে। কোথা থেকে টাকা আসছে কিভাবে খরচ হচ্ছে, কার সঙ্গে আলোচনা হচ্ছে তা স্পষ্ট নয়। এখানেই শেষ নয়, তৃণমূল মহাসচিবের আরো কটাক্ষ, একদিকে আত্মনির্ভরশীল ভারতের কথা বলা হচ্ছে অথচ স্বনির্ভর রাজ্যের কথা বলা হচ্ছে না।

তিনি বলেন, মানুষের কাজে এই টাকা লাগলে ভাল। কিন্তু লাগছে কই , মানুষের টাকা মানুষকে দিয়ে বলছে দিচ্ছি। এখানেই শেষ নয়, এদিন পার্থ চট্টোপাধ্যায় প্রধানমন্ত্রীকেও কটাক্ষ করতে ছাড়েননি। তিনি বলেন, উনার জ্যাকেটে ভর্তি করা আছে প্যাকেজ। তাই রোজ রোজ ঘোষণা হচ্ছে। প্যাকেজ আর জ্যাকেট একরকম হয়ে গেছে। যতক্ষণ পর্যন্ত তার অনুভূতি মানুষ না পাবে, ততক্ষণ ঘোষণা ঘোষণা ঘোষণাই থেকে যাবে।

তার অভিযোগ কেন্দ্র পরিকল্পিত মিথ্যাচার করছে। কখনো বলছে আপনাকে টাকা দিচ্ছি। আমার টাকা এখন আমাকে জমা দিতে হবে না বলে, বলা হচ্ছে হাতে টাকা দেওয়া হল। আমার টাকায় আমার হাতে রয়েছে, তাহলে কেন্দ্র দিল টা কি। কত দেওয়া হল, আর মানুষ কত পেল, এর হিসেব কিন্তু মিলছে না।

এদিন করোনা আবহে, রাজ্যে বিজেপির ভূমিকারও সমালোচনা করেছেন তিনি। বিশেষ করে যেভাবে পরিযায়ী শ্রমিকদের ফিরিয়ে আনা নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণাকে বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ কটাক্ষ করেছেন, এদিন তারও প্রতিবাদ করেন তিনি। পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের ভাষায়,যারা নিজেরা ধোঁকাবাজ তাঁরাই অন্যকে ধোঁকাবাজ বলে। কি হয়েছে না হয়েছে তার পুরো নথি আছে। বাংলার মানুষ সব দেখছে। বাংলার মানুষ ১০৫ টা ট্রেনের তালিকা দেখেছে, তার সময় কোথায় কোনগুলো আসছে তাও বিস্তারিত দেওয়া হয়েছে। এরপর কেউ যদি বলেন, এগুলি ধোঁকাবাজি তাহলে তিনি মানুষকে ধোঁকা দিচ্ছেন।

এদিন পার্থ চট্টোপাধ্যায় স্পষ্ট ভাষায় বলেন, তৃণমূল বর্তমান পরিস্থিতিতে রাজনীতি করতে চায় না। বরং সকলে মিলে করোনার বিরুদ্ধে সংঘবদ্ধ লড়াই করতে চায়। বিজেপি কবিডের মধ্যেও রাজনীতি করতে চাইছে, তাই সবকিছুতে ধোঁকাবাজি দেখছে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only