মঙ্গলবার, ২৩ জুন, ২০২০

অবশেষে জামিন পেলেন জামিয়ার অন্তঃসত্ত্বা ছাত্রী সফুরা, কেন জেনে নিন

পুবের কলমঃ অবশেষে জামিন পেলেন নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের বিরুদ্ধে আন্দোলনকারী জামিয়া মিল্লিয়া ইসলামিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের জামিয়া কোঅর্ডিনেশন কমিটির জামিয়া কোঅর্ডিনেটর অন্তঃসত্ত্বা ছাত্রী সফুরা জারগার। ২৭ বছর বয়সি সফুরাকে গত ১০ এপ্রিল দিল্লি পুরিশের স্পেশাল সেল ইউএপিএ আইনে গ্রেফতার করে। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ, সফুরা নাকি উত্তর পূর্ব দিল্লির দাঙ্গায় জড়িত। 

সফুরাকে গ্রেফতারের প্রতিবাদে সরব হন শাবানা আজমি, হর্ষ মন্দারের মতো সমাজকর্মী তথা বিদ্বজ্জ্নরা। দাবি জানান সফুরাকে অবিলম্বে মুক্তি দিতে। সফুরা এই মুহূর্তে ৪ সপ্তাহের অন্তঃসত্ত্বা। পলিসিস্টিক ওভারিয়ান ডিসঅর্ডারেও ভুগছেন। আর তাই মানবিকতার ভিত্তিতেই জামিনের আবেদন করলেও দিল্লি পুলিশের রিপোর্টের ভিত্তিতে  তার জামিনের আবেদন খারিজ করে দেয় দিল্লির পাতিয়ালা হাউস কোর্ট। তিন তিনবার তার জামিনের আর্জি খারিজ করে দেওয়ায় তাকে সহায়তা দিতে এগিয়ে আসে মার্কিন আইনজীবী সংগঠন ‘দ্য আমেরিকান বার অ্যাসোসিয়েশন সেন্টার ফর হিউম্যান রাইটস। 

মঙ্গলবার অবশ্য দিল্লি হাইকোর্ট সফুরার জামিনের আবেদন মঞ্জুর করে। তবে এদিন তার জামিনের বিরোধিতা করেনি কেন্দ্র কিংবা দিল্লি পুলিশ। এ সম্পর্কে দিল্লি হাইকোর্টে কেন্দ্রীয় সরকারের হয়ে সওয়াল করেন সলিসিটর জেনারেল তুষার মেহতা। শুনানির সময় আদালতকে তিনি বলেন, মানবিকতার কারণেই সফুরার জামিনের আবেদনের বিরোধিতা করেননি তিনি। দিল্লি হাইকোর্টের বিচারপতি রাজীব শাকধের শুনানি শেষে সফুরাকে তিহার জেল থেকে মুক্তি দেওয়ার নির্দেশ দেন। সেইসঙ্গে জামিনের জন্য সফুরাকে ১০ হাজার টাকা জমা দিতে বলা হয়। সফুরার হয়ে সওয়াল করেন আইনজীবী নিত্য রামকৃষ্ণ।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only