রবিবার, ২১ জুন, ২০২০

দেশে ফিরতে মুখ্যমন্ত্রীর দ্বারস্থ বাংলাদেশে আটকে পড়া শিক্ষক, দেশে ফেরাতে পাশে দাঁড়ালেন কলকাতা হাইকোর্টের আইনজীবী

পুবের কলম প্রতিবেদক: বাংলাদেশে এক আত্মীয়ের বিয়ের নিমন্ত্রণ রক্ষা করতে গিয়েই শুরু হয়ে যায় লকডাউন।  আর তাতেই  বিপাকে পড়লেন এপার বাংলার এক শিক্ষক। তিন মাসেরও বেশি সময় ধরে ওই দেশে আটকে রয়েছেন উত্তর ২৪ পরগণার চাঁদপাড়ার বাসিন্দা পেশায় শিক্ষক অচিন্ত্য সাহা।  তার ভিসার মেয়াদ শেষ হয়ে গিয়েছে দুসপ্তাহ আগে। ঢাকায় ভারতীয় দূতাবাসে যোগাযোগ করেও লাভ হয়নি। ফলে আরও সমস্যায় পড়েন ওই শিক্ষক। এই অবস্থায় ফিরতে চেয়ে চলতি সপ্তাহে তিনি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যাদের দ্বারস্থ হয়েছেন।

এরপরেই ওই শিক্ষক কলকাতা হাইকোর্টের আইনজীবী মুকুল বিশ্বাসের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। তিনি ওই শিক্ষককে দেশে ফেরাতে বিনামূল্যে আইনি সহায়তা দিচ্ছেন বলে জানা গিয়েছে। আইনজীবী জানান, মার্চ মাসের শুরুতে বাংলাদেশে গিয়েছিলেন। এক মাস থাকার পরিকল্পনা ছিল। কিন্তু আচমকা লক ডাউনে তিনি সেখানেই আটকে পড়েন। পরে ভারতীয় দূতাবাসে যোগাযোগ করে বিশেষ বিমানে ফেরার ব্যবস্থা হলেও ভাড়ার টাকা জোগাড় করতে পারেননি। ফলে তিনি দেশে ফিরতে পারেননি।

তিনি আরও জানান, ওই শিক্ষক এখন রয়েছেন ফরিদপুরে। সেখান থেকে ঢাকা ছয় ঘন্টার রাস্তা। কিন্তু বাংলাদেশে লকডাউন চলায় সেখানে যাওয়ার গাড়ি পাওয়া যাচ্ছে না। অন্যদিকে , ফরিদপুরে তার আত্মীয় বাড়ি থেকে বনগাঁ সীমান্ত মাত্র দুই ঘন্টার রাস্তা। রাজ্য সরকার অনুমতি দিলে বনগাঁ সীমান্ত হয়ে বাড়ি ফিরতে পারেবেন তিনি। 

এদিকে, তার অসুস্থ বিধবা মা বাড়িতে একা রয়েছেন। বিস্তারিত জানিয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে ইমেল করার পাশাপাশি ডাক মারফৎ চিঠিও পাঠিয়েছেন তিনি। তার সমস্যার কথা জেনে পাশে দাঁড়িয়েছেন বিশিষ্ট অঙ্কের শিক্ষক চঞ্চল ঘোষ। প্রয়োজনে তাকে আর্থিক সাহায্যের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তিনি।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only