মঙ্গলবার, ৩০ জুন, ২০২০

বনগাঁয় তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষে উত্তেজনা, পুলিশ মোতায়েন


এম এ হাকিম, বনগাঁ :  

উত্তর ২৪ পরগণার বনগাঁয় তৃণমূল ও বিজেপি সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে ঘাটবাঁওড় পঞ্চায়েত অফিসের সামনের ওই ঘটনায় আজিজুর মণ্ডল (সোনা) (২২) নামে এক তৃণমূল সমর্থকের মাথা ও হাতে আঘাত লাগলে তিনি আহত হন। এনিয়ে সংশ্লিষ্ট এলাকায় তীব্র উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। ঘটনার খবর পেয়ে দ্রুত বনগাঁ থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি সামাল দেয়।  
আনিসুর রহমান
বনগাঁ নীলদর্পণ ব্লক তৃণমূল যুব কংগ্রেসের সহ-সভাপতি আনিসুর রহমান মণ্ডল জানান, এদিন চিনের বিরুদ্ধে এলাকার মানুষজন পঞ্চায়েত অফিসের সামনে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে স্লোগান দিচ্ছিলেন। তাঁরা চিনা পণ্য বয়কটের দাবিতে আন্দোলন করছিলেন। এসময় আচমকা বিজেপি আশ্রিত দুর্বৃত্তরা ইট, পাথর নিক্ষেপ করে তাঁদের ওপরে হামলা চালায়। এতে আজিজুর মণ্ডল নামে এক যুবক আহত হলে তাঁকে স্থানীয় চিকিৎসা কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হয়।    

অন্যদিকে, বিজেপি সদস্যা ও পঞ্চায়েতের বিরোধী দলনেত্রী অপর্ণা মণ্ডলের দাবি, তাঁরা আমফানে ক্ষতিগ্রস্তদের নাম নতুনভাবে নথিভুক্ত করতে পঞ্চায়েতে এসেছিলেন। প্রধান এসে না পৌঁছনোয় বাইরে অপেক্ষা করছিলাম। এসময় তৃণমূল সমর্থকদের হাতে তাঁদের একজন আহত হয়েছেন।  

যদিও বিজেপি নেত্রীর ওই অভিযোগ খারিজ করে দিয়ে তৃণমূল যুব নেতা আনিসুর রহমান বলেন, বিজেপি সমর্থকরাই হামলা চালালে তাঁদের এক সমর্থক আহত হয়েছেন। চিনা পণ্য বয়কটের দাবিতে আন্দোলনে যারা হামলা চালায় তাঁরা কেমন দেশপ্রেমী তা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন তিনি। 

পলাশ মণ্ডল নামে তৃণমূলের স্থানীয় সক্রিয় কর্মী জানান, এলাকার বাসিন্দারা স্বতঃস্ফূর্তভাবে চিনবিরোধী বিক্ষোভ প্রদর্শন করে চিনা পণ্য বয়কটের আহ্বান জানাচ্ছিলেন। এসময় বিজেপি সমর্থকরা হামলা চালালে তাঁদের একজন আহত হয়েছে।   

এদিকে, ওই সংঘর্ষের ঘটনাকে কেন্দ্র করে বড়সড় গোলযোগের আশঙ্কায় ভিতর থেকে পঞ্চায়েত অফিসের গেট সাময়িকভাবে বন্ধ করে দেওয়া হয়। পরে পঞ্চায়েত প্রধান চামেলী মণ্ডল পৌঁছলে পঞ্চায়েতের গেট খুলে দেওয়া হয়। তিনি গোলযোগের বিষয়ে কিছু জানেন না বলে মন্তব্য করেন।  ঘটনাস্থলে চাপা উত্তেজনা থাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only