মঙ্গলবার, ২৮ জুলাই, ২০২০

ড.- এস কিউ আর ইলিয়াসের বিরুদ্ধে পুলিশি চক্রান্তের নিন্দা




পুবের কলম ওয়েব ডেস্ক:­ ওয়েলফেয়ার পার্টির সর্বভারতীয় সভাপতি ড. এস কিউ আর ইলিয়াসের বিরুদ্ধে দিল্লি পুলিশ এফআইআর করেছে। তা নিয়ে ড. ইলিয়াসও সোশ্যাল মিডিয়াতে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। এই ঘটনার প্রতিবাদে সারাদেশেই সোশ্যাল মিডিয়াতে প্রতিবাদ জানাচ্ছেন ওয়েলফেয়ার পার্টির কর্মীরা। দলটির অভিযোগ,বিরোধী কণ্ঠকে রুদ্ধ করতেই ‘মিথ্যা মামলা’। ওয়েলফেয়ার পার্টির নেতা-কর্মীরা বিজেপি সরকারের তীব্র সমালোচনাও করেছেন। 

এ দিকে ড. এস কিউ আর ইলিয়াসের পক্ষ নিয়ে বিবৃতি দিয়েছে জামাআতে ইসলামি হিন্দ। ওই সংগঠনের রাজ্য সভাপতি মাওলানা আবদুর রফিক প্রেস বিজ্ঞপ্তি দিয়ে বলেছেন, দেশের খ্যাতনামা মুসলিম বুদ্ধিজীবী, শিক্ষাবিদ ও রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব তথা মূল্যবোধ ভিত্তিক রাজনৈতিক দল ওয়েলফেয়ার পার্টি অফ ইন্ডিয়ার সর্বভারতীয় সভাপতি ড.এস কিউ আর ইলিয়াসের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দায়ের করেছে দিল্লি পুলিশ। তিনি আরও বলেন, কেন্দ্রীয় সরকার স্বৈরাচারী মানসিকতাকে প্রতিষ্ঠিত করতে চাইছে। দিল্লি পুলিশ ড. ইলিয়াসের বিরুদ্ধে এফআইআর করেছে, দিল্লিতে ঘটে যাওয়া মুসলিম বিরোধী দাঙ্গায় উসকানির অভিযোগে, যা শুধু লজ্জাজনক নয় বরং হাস্যকর। 

কারণ, দিল্লি দাঙ্গার বিষয়ে দিল্লি হাইকোর্ট এবং দিল্লি মাইনরিটি কমিশনের পর্যবেক্ষণ যে, দিল্লিতে একতরফাভাবে মুসলিমদের উপর আক্রমণ হয়েছে। ফলে এই ধরনের মিথ্যা মামলা দিয়ে প্রকৃত সত্যকে আড়াল করতে চাইছে দিল্লি পুলিশ।

মাওলানা আবদুর রফিক বলেন, এমন এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে পুলিশ এই মামলা করেছে, যিনি সারাজীবন সম্প্রদায়িক সম্প্রীতি গড়ে তোলা ও রক্ষার জন্য কাজ করে চলেছেন। আসলে দেশজুড়ে গড়ে উঠা সিএএ ও এনআরসি বিরোধী আন্দোলনকে দমানোর জন্য এবং নিজেদের স্বার্থ রক্ষার জন্য দেশবরেণ্য নেতা ড. ইলিয়াসের নামে এই ধরনের ভিত্তিহীন অভিযোগ আনা হয়েছে। তাঁর আরও অভিযোগ, দেশের মানুষ যখন করোনা পরিস্থিতিতে জেরবার– ঠিক তখনই এই ধরনের মিথ্যা মামলা দিয়ে ড. ইলিয়াসকে গ্রেফতার করার অপচেষ্টা করছে অমিত শাহ নিয়ন্ত্রিত দিল্লি পুলিশ। দিল্লি গণহত্যার সঙ্গে সংযুক্ত শাসকদল আশ্রিত অপরাধীদেরকে আড়াল করার জন্য এটি জঘন্য প্রয়াস। নিরপরাধ ও সৎ মানুষদের নামে মিথ্যা মামলা করে প্রকৃত দোষীদের বাঁচানো হচ্ছে।

মাওলানা আবদুর রফিকের মতে, ইলিয়াস সাহেব শুধু একজন ব্যক্তি নন, তিনি মুসলিম সমাজের একজন দায়িত্ববান ও দায়িত্বশীল ব্যক্তি। বাবরি মসজিদ সমস্যা থেকে শুরু করে মুসলিম পার্সোনাল ল’ বোর্ড-সহ দেশ ও মুসলিম মিল্লাতের বহু গুরুত্বপূর্ণ প্রতিষ্ঠানের বিভিন্ন দায়িত্ব তিনি যোগ্যতার সঙ্গে পালন করছেন। তাঁর বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিয়ে ফাঁসানোর জন্য যেকোনও ধরনের ষড়যন্ত্র দেশবাসী মেনে নেবে না। এ বিষয়ে রাজ্যের শুভবুদ্ধি সম্পন্ন নাগরিক সমাজকে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে প্রতিবাদের সামিল হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন মাওলানা আবদুর রফিক। সেইসঙ্গে নাগরিক অধিকার আদায়ের জন আন্দোলনরত অন্যান্য নেতৃত্ব ও ব্যক্তিদের মুক্তির দাবিতে সোচ্চার হওয়ার আহ্বান জানান।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only