শুক্রবার, ৩ জুলাই, ২০২০

এবার বুথে বুথে একুশে জুলাই তৃণমূলের



পুবের কলম ওয়েব ডেস্ক: তাঁর জীবনে একুশের গুরুত্ব অপরিসীম। সেই যুব কংগ্রেসের সভানেত্রী থাকা সময় থেকে ১৯৯১ সালের একুশের শহিদদের পাশে থেকেছেন তিনি। প্রতিবছর ২১ জুলাই এই দিনটিকে সামনে রেখে ধর্মতলায় মহা সমাবেশ হয়। কিন্তু এবার করোনা আবহে তা করা সম্ভব নয়। তাই এ বছর কোনও জমায়েত নয়। সামাজিক দূরত্বের বিধি মনে এবার একুশে জুলাই পালন করা হবে বুথে বুথে। তবে একুশের শহিদদের স্মরণ করতে ধর্মতলায় শহিদবেদী তৈরি করা হবে। সেখানে শহিদবেদীতে মালা দেবেন তৃণমূল নেত্রী। তবে ধর্মতলায় কোনও জনসভা হবে না। দলনেত্রী দলীয় কর্মী সমর্থকদের উদ্দেশে বক্তব্য রাখবেন। তবে কোথা থেকে তা এখনও জানানো হয়নি। 

গত কয়েকদিন ধরে প্রচার চলছিল ২১ জুলাই বিজেপির কায়দায় ভার্চুয়াল সমাবেশ হওয়ার কথা শোনা যাচ্ছিল। তবে ভার্চুয়াল সমাবেশের পক্ষপাতী নন তৃণমূল সুপ্রিমো। কারণ কোনওভাবেই তিনি বিজেপিকে অনুকরণ করতে চান না। আর তাই শহিদ স্মরণের বিষয়টিকে বুথেবুথে পৌঁছে দিয়েছেন তিনি। তাঁর কথায়, এবার রাজ্যের সব বুথে আলাদা করে হবে শহিদ দিবস পালন।

এই রাজ্যের রাজনীতিতে একুশে জুলাই বরাবারই গুরুত্বপূর্ণ। সেই কবে থেকে এই দিনটি নানা রাজনৈতিক উত্থান পতনের সাক্ষী। এই জনসভার ভিড়ই বুঝিয়ে দিয়েছে তৃণমূল কংগ্রেসের অগ্রগতি। ফি বছর এই দিনেই ধর্মতলার সমাবেশ থেকে তৃণমূলনেত্রী নতুন নতুন কর্মসূচি ঘোষণা করেন। ভিড় উপচে পড়ে গোটা এলাকায়।

কিন্তু বর্তমান পরিস্থিতিতে তো ভিড় এড়িয়ে চলাই সব থেকে বড় চ্যালেঞ্জ। আর আনলকের নিয়মেও কোনও রকম সমাবেশ নিষিদ্ধ। অথচ একুশ সালের ভোটের আগে শেষ একুশের সমাবেশ তৃণমূল কংগ্রেসের কাছে ছিল অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। জানা গিয়েছে, তৃণমূলনেত্রী সেই কথা স্মরণ করিয়েই নেতাদের এদিন জানিয়েছেন, এবার একুশে জুলাই পালনকে পৌঁছে দিতে হবে বুথস্তরে। সর্বত্র হবে ছোট ছোট সমাবেশ। তৃণমূল সূত্রের খবর, কোনও সমাবেশেই ২৫ জনের বেশি থাকতে পারবেন না। কলকাতায় এমনই কোনও ছোট সমাবেশ থেকে বক্তব্য রাখবেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে রাজ্যের তৃণমূল সমর্থকদের কাছে পৌঁছে দেওয়া হতে পারে। 

তৃণমূল কংগ্রেসের এই বার্ষিক সমাবেশ নিয়ে প্রতি বছরই জুনের মাঝামাঝি সময় থেকেই প্রস্তুতি শুরু হয়ে যায়। কিন্তু এবার করোনা সংক্রমণের পরিবেশে পরিস্থতি একেবারেই আলাদা। তাই গোটা রাজ্যের তৃণমূল কর্মীরা অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করে আছেন দলনেত্রীর বিকল্প-ভাবনা জানার জন্য। তাই সমাবেশে ঠিক ১৮ দিন আগে একুশে জুলাই পালন নিয়ে দলের রাজ্য নেতাদের সঙ্গে শুক্রবার ভিডিয়ো-বৈঠক করেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। উপস্থিত ছিলেন দলের সাংসদ ও বিধায়ক এবং সাংগঠনিক পদাধিকারীরা। 

এদিনের বৈঠকেই ঠিক হয়েছে একুশে জুলাই পালনের আগে থেকেই বুথ স্তরে অন্যান্য কর্মসূচি পালন করতে হবে। আর সেটা শুরু হয়ে যাবে আগামী সপ্তাহ থেকেই। ৬ থেকে ১৩ জুলাই সর্বত্র কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে বিভিন্ন ইস্যুতে বিক্ষোভ সংগঠিত করতে হবে নেতা, কর্মীদের।এই সময় রাষ্ট্রায়াত্ত সংস্থা বেসরকারি করণ, কোল ইণ্ডিয়ার দফতর সরিয়ে নিয়ে যাওয়া, করোনা ও আমফান পরিস্থিতিতে কীভাবে কেন্দ্র রাজ্যকে বঞ্চনা করেছে সে কথা তুলে ধরার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি। তাঁর বক্তব্য বিজেপিকে কোনওভাবেই এক ইঞ্চি জমি ছাড়া নয়।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only