শুক্রবার, ৩ জুলাই, ২০২০

হৃৎযন্ত্র বিকল হয়ে মারা গেলেন কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি প্রতীক প্রকাশ বন্দ্যোপাধ্যায়


পুবের কলম প্রতিবেদক:  মারা গেলেন কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি প্রতীক প্রকাশ বন্দ্যোপাধ্যায়। শুক্রবার সকালে অ্যাপোলো হাসপাতালে হৃৎপিণ্ড বিকল হয়ে তিনি মারা গেছেন। মৃত্যু কালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৫১ বছর। তাঁর মৃত্যুতে শোকস্তব্ধ বিচারপতি থেকে আইনজীবী মহল। বিচারপতির মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর  এবং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। 

ক্যালকাটা বয়জ স্কুল থেকে তিনি পড়াশুনা করেছেন। এরপর কলকাতা বিশবিদ্যালয় থেকে আইন নিয়ে পাশ করেন। এরপরেই ১৯৯৫ সাল থেকে কলকাতা হাইকোর্টে আইনজীবী হিসেবে প্র্যাকটিস শুরু করেন। 

২০১৭ সালে তিনি কলকাতা হাইকোর্টের অতিরিক্ত বিচারপতি হিসেবে নিযুক্ত হন। মাত্র তিন বছর কর্মজীবনে একাধিক গুরুত্ব পূর্ণ মামলার রায় দিয়েছেন তিনি। লিঙ্গের সমানাধিকার সংক্রান্ত মামলার রায় দিয়েছেন। মাদ্রাসা থেকে পাশ করা পড়ুয়ারা গ্রামীণ ডাক সেবক পদে চাকরিতে যে আবেদনের যোগ্য সেই নিয়ে রায়ও দিয়েছেন। পাশাপাশি, কলকাতার প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারের আগাম জামিনের মামলতেও রায় দিয়েছিলেন বিচারপতি  বন্দ্যোপাধ্যায়। বিচারপতি হওয়ার আগে তিনি  ‘ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি অফ জুডিশিয়াল সাইন্সে’ (এন ইউ জে এস)  অতিথি অধ্যাপক হিসেবে কাজ করেছেন। 

বিচারপতি হলেও হাইকোর্টের বরিষ্ঠ আইনজীবীদের পাশাপাশি জুনিয়ার আইনজীবীদের সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক ছিল খুবই ভালো। সকলের সঙ্গেই তিনি মিশতেন। জুনিয়ার আইনজীবীদের পাশাপাশি ক্লার্ক দেরও তিনি কখনো ছোট করে  দেখেননি। সকলেরই প্রিয় ছিলেন তিনি। সকলের কাছে তিনি প্রতীক দা নামেই জনপ্রিয় ছিলেন। এসবের পাশাপাশি তিনি সোশ্যাল মিডিয়ায় খুবই সক্রিয় ছিলেন। "প্রতীক দা " নামে তিনি একটি ব্লগও চালাতেন। মামলা চলার সময়ে মাঝে মধ্যেই আইনজীবীদের সঙ্গে মশকরা ও করে ফেলতেন। ছোট বড় সমস্ত  আইনজীবীর কাছে তিনি ছিলেন খুবই প্রিয় একজন বিচারপতি।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only