শনিবার, ২৫ জুলাই, ২০২০

মাস্ক না পরার প্রতিবাদ করায় প্রহৃত ৭৩ বছরের বৃদ্ধ



কৌশিক সালুই, বীরভূম

সচেতনতার পাঠ দিতে গিয়ে আক্রান্ত হলেন এক বৃদ্ধ। ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার বীরভূমের সিউড়ি শহরের স্টেশন মোড় লাগোয়া একটি মিষ্টির দোকানে। রক্তাক্ত অবস্থায় আহত বৃদ্ধকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান স্থানীয়রা। অভিযুক্ত ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, আক্রান্ত ব্যক্তি হলেন নির্মল সিংহ। আর অভিযুক্ত ব্যক্তি নাম সবির সেখ। শনিবার রাজ্য জুড়ে ঘোষিত লকডাউন। কিন্তু এদিন ভোর থেকেই সিউড়ি স্টেশন মোড় লাগোয়া বানী মন্দির স্কুলের সামনেই  এক মিষ্টির দোকানে বসেছে চায়ের আসর।দশ জন লোকজন মজলিস করে চা খাচ্ছে। তাদের মধ্যে প্রায় সকলেই মাস্ক পরে। শুধু দু'জন মাস্ক পরে ছিলেন না। 

তখন ভোর সাড়ে পাঁচটা হবে। প্রাতঃভ্রমন সেরে খাটাল থেকে দুধ নিয়ে ওই মিস্টির দোকানের সামনে দিয়ে বাড়ি ফিরছেন, সিউড়ি শহরের রামকৃষ্ণপল্লীর বাসিন্দা ৭৩ বছরের বৃদ্ধ অবসরপ্রাপ্ত ইসিএল কর্মচারী নির্মল সিংহ। 
তিনি দেখতে পান দোকানের সামনে রাস্তার পাশে দুজন মাস্ক না পরা অবস্থাতেই দাঁড়িয়ে রয়েছেন। তাদেরকে তিনি জিজ্ঞাসা করেন, কি কারণে তাঁরা মাস্ক পরেননি।পাশাপাশি মাস্ক পরার পরামর্শ দেন।

প্রবীন নির্মলবাবুর পরামর্শ শুনে দুজনের একজন সঙ্গে সঙ্গে পকেট থেকে মাস্ক পরে নেয়। কিন্তু তেড়ে আসেন অপরজন। ওই বৃদ্ধের সঙ্গে বাদানুবাদে জড়িয়ে পড়েন ওই ব্যক্তি। প্রতিবাদী নির্মলবাবুকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ শুরু করে অভিযুক্ত। বৃদ্ধ নির্মলবাবু রুখে দাঁড়াতেই মাটি থেকে ইট তুলে সজোরে মাথায় আঘাত করে। ইটের আঘাতে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে বৃদ্ধ। মাথা ফেটে রক্ত ঝড়তে থাকে। রক্তাক্ত  অবস্থায় মাটিতে লুটিয়ে পড়েন বৃদ্ধ । ঘটনা দেখে ছুটে আসেন প্রাতঃভ্রমণে বেরনো পুলিশকর্মী হৃদয় দাস। তিনি ও স্থানীয় বাসিন্দারা আহত বৃদ্ধকে উদ্ধার করে সিউড়ি সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। প্রাথমিক চিকিৎসার পর তাকে অবশ্য ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। 

এরপর পুরো ঘটনা জানানো হয় সিউড়ি থানায়। অভিযোগের ভিত্তিতে সিউড়ি থানার পুলিশ ইতিমধ্যেই অভিযুক্ত সবিরকে গ্রেফতার করেছে। তার বাড়ি সিউড়ি স্টেশন মোড় লাগোয়া ফকির পাড়ায়। পেশায় সাইকেল মিস্ত্রি। অভিযুক্তদের পরিবারের তরফ থেকে প্রতিবাদকারীর বাড়িতে গিয়ে ক্ষমা চাওয়া হয়েছে।ধৃতের পুত্র আজেমা বিবি বলেন, " মাস্ক পড়া নিয়ে অশান্তি হয়েছে। তবে আমার দু'বছরের ছেলে মারা যাবার পর থেকেই শ্বশুরের মাথার ঠিক নেই। তাই কখনও কখনও মাথা গরম করে ফেলে।"

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only