বুধবার, ৮ জুলাই, ২০২০

রাজ্যে একদিনেই আক্রান্ত হাজার ছুঁই ছুঁই

পুবের কলম প্রতিবেদক: চেষ্টার কোনও ত্রুটি নেই। তবু সময় যত গড়াচ্ছে ততই রাজ্যে কঠিন হয়ে যাচ্ছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াই। রাজ্যের সব কনটেনমেন্ট জোনে কঠোর লকডাউন জারির আগের দিন নতুন করে সংক্রামিতের সংখ্যা উদ্বেগ বাড়িয়েছে। গত ২৪ ঘন্টায় রাজ্যে একদিনেই নতুন করে মারণ ভাইরাসে সংক্রমিত হয়েছেন ৯৮৬ জন। যার ফলে মোট আক্রান্তের সংখ্যা এক ধাক্কায় বেড়ে হয়েছে ২৪ হাজার ৮২৩ জন। পাশাপাশি একই সময়ে করোনার ছোবলে প্রাণ হারিয়েছেন আরও ২৩ জন। এ নিয়ে রাজ্যে মারণ ভাইরাসে ঝরল ৮২৭ প্রাণ।

বুধবারই রাজ্যের করোনা চিকি‍ৎসার পরিকাঠামো উন্নতিতে কী ব্যবস্থা নেওয়া যায়, তা নিয়ে প্রবীণ চিকি‍ৎসক ও স্বাস্থ্য কর্তাদের সঙ্গে নবান্নে বৈঠকে বসেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই বৈঠকের মাত্র ঘন্টা তিনেক বাদে রাজ্যের স্বাস্থ্য দফতরের করোনা সংক্রান্ত স্বাস্থ্য বুলেটিন অশনিসঙ্কেতের ইঙ্গিত দিয়েছে। অতীতের সব রেকর্ড চুরমার করে দিয়েছে মারণ ভাইরাসের সংক্রমণ। স্বাস্থ্য দফতরের বুলেটিন অনুযায়ী, ‘গত ২৪ ঘন্টায় ১০ হাজার ৩৮৬ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এ নিয়ে রাজ্যে মোট ৫ লাখ ৭২ হাজার ৫২৩ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হলো। নয়া নমুনা পরীক্ষয় ৯৮৬ জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। প্রাণ হারিয়েছেন ২৩ জন। আগের দিনের তুলনায় মৃত্যুর ঘটনা অবশ্য হ্রাস পেয়েছে। মারণ ভাইরাসকে হারিয়ে জয়ী হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৫০১ জন। এ নিয়ে এখনও পর্যন্ত করোনাকে হারিয়ে সুস্থ হলেন ১৬ হাজার ২৯১ জন। সুস্থতার হার কিছুটা কমে দাঁড়িয়েছে ৬৫ দশমিক ৬২ শতাংশ। রাজ্যে এই মুহূর্তে সক্রিয় করোনা রুগীর সংখ্যা ৭ হাজার ৭০৫ জন।’

কলকাতা মহানগরের করোনা সংক্রমণ ক্রমশই উদ্বেগ বাড়াচ্ছে। স্বাস্থ্য বুলেটিন অনুযায়ী, গত ২৪ ঘন্টায় শহরে নতুন করে ৩৬৬ জনের শরীরে মারণ ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। সংক্রমণের নিরিখে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে উত্তর ২৪ পরগনা। জেলায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ২২৩ জন। হাওড়া ও দক্ষিণ ২৪ পরগনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১০৬ জন ও ১০৩ জন। হুগলিতে নতুন করে ৩৬ জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। উত্তরবঙ্গের মালদায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৪৫ জন। গত ২৪ ঘন্টায় মারণ ভাইরাসে সবচেয়ে বেশি প্রাণ ঝরেছে কলকাতা ও উত্তর ২৪ পরগনায়। দুই জেলাতেই ৬ জন করে মারা গিয়েছেন। হাওড়ায় মারা গিয়েছেন ৫ জন। মালদায় ২ জন, দক্ষিণ ২৪ পরগনা, হুগলি, পূর্ব মেদিনীপুর ও জলপাইগুরিতে একজন করে প্রাণ হারিয়েছেন। 

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only