রবিবার, ৫ জুলাই, ২০২০

‘কালনাগিনী’ সীতারমণ, কটাক্ষ কল্যাণের, পাল্টা বিজেপি


পুবের কলম ওয়েব ডেস্ক: কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণকে ‘কালনাগিনী’ বলে কটাক্ষ করলেন তৃণমূল  সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়। একইসঙ্গে তিনি রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষের তীব্র সমালোচনা করেছেন।

পেট্রোপণ্যের দাম বৃদ্ধির প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে  শনিবার  বাঁকুড়ার মাচানতলায় কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় বিজেপি’র রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ কত দুধ খেয়েছেন তা লড়াইয়ের ময়দানে পরখ করে নেবেন বলে চ্যালেঞ্জ জানান।

কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন,  ‘জিডিপি গ্রোথ এক শতাংশের নীচে নেমে  গেছে! ধন্য তুমি নরেন্দ্র মোদি, আর ধন্য তোমার অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ! ‘কালনাগিনী’র ছোবল খেয়ে যেমন মানুষ মারা যায়, ‘নির্মলা সীতারমণের ছোবল’ খেয়ে ভারতবর্ষের মানুষ প্রতিদিন একটা একটা করে মরছে। এমন একজন অর্থমন্ত্রী! প্রচুর অহংকার আছে, সেই অহংকারের কথা ভাবা যাবে না। গোটা ভারতের অর্থনৈতিক অবস্থা মাটির সঙ্গে মিশিয়ে দিয়ে লজ্জা করছে না এখনও গদিতে বসে আছিস! পদত্যাগ করে অন্ধ্রপ্রদেশে ঘরে চলে যাওয়া উচিত নির্মলা সীতারমণের। গোটা পৃথিবীর সর্বনিকৃষ্ট কেউ যদি অর্থমন্ত্রী থাকে তার নাম নির্মলা সীতারমণ।’‘ভারতবর্ষ এত বাজে অর্থমন্ত্রী জীবনে কখনও দেখেনি’ বলেও তৃণমূল এমপি ও বিশিষ্ট আইনজীবী কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় মন্তব্য করেন।

এদিকে, পাল্টা জবাবে বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ এমপি বলেছেন, আমরা এ জাতীয় মন্তব্যে তেমন গুরুত্ব দিই না, তারা হতাশায় এ জাতীয় অবাস্তব কথা বলছে।বিজেপি’র কেন্দ্রীয় নেতা ও দলীয় মুখপাত্র সম্বিত পাত্র অবশ্য বলেছেন, তৃণমূল এমপি অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণকে কালীনাগিনী বলে অভিহিত  করেছেন যা নিন্দনীয়। এই বিবৃতি সেই রাজ্যে দেওয়া হয়েছে যেখানে প্রতিটি ঘরেই দেবী কালী মা পূজিত হয়।’ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের বক্তব্য কেবল বর্ণবাদী নয়, নারী বিরোধীও বলেও সম্বিত পাত্র মন্তব্য করেছেন।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only