সোমবার, ৬ জুলাই, ২০২০

লকডাউনের মাসুল গুনবে গ্রাহকরা, ফের মহার্ঘ্য হতে পারে রিচার্জ প্ল্যান



পুবের কলম ওয়েব ডেস্ক: স্মার্টফোন ইউজারদের জন্য আবার একটি খারাপ খবর। আবার বাড়তে পারে রিচার্জ প্ল্যানগুলির দাম। 

গত কয়েকমাসে বিভিন্ন টেলিকম সংস্থার ট্যারিফ প্ল্যান একলাফে অনেকটাই বেড়ে গিয়েছে। ফলে মনে করা হচ্ছিল যে হয়তো শীঘ্রই টেলিকম কোম্পানিগুলি আর তাদের প্ল্যানের দাম বাড়াবে না। কিন্তু লকডাউনের কারণে প্রবল সমস্যায় পড়েছে টেলিকম সংস্থাগুলি। যার জেরে ট্যারিফ প্ল্যানের মূল্য ব্যয়বহুল করা বাধ্যতামূলক হয়ে পড়েছে। EY জানিয়েছে পরবর্তী ১২ থেকে ১৮ মাসের মধ্যে দুবার রিচার্জ প্ল্যানগুলির দাম বাড়ানো হতে পারে।

EY-এর কর্মকর্তা প্রশান্ত সিংহাল বলেন, বর্তমানে রিচার্জ প্ল্যানগুলির শুল্ক না বাড়লেও, সংস্থাগুলি কিছু সময় পরে অবশ্যই ট্যারিফ প্ল্যানগুলির দাম বাড়াবে। তাঁর মতে, শুল্ক ব্যয়বহুল করা জরুরী। এখন গ্রাহকের ব্যয় কম, এমনকি অনেকের ইন্টারনেট ব্যবহারের জন্য ব্রডব্যান্ড ব্যবহার করছে। সুতরাং কোম্পানিগুলিকে টিকে থাকতে আগামী ৬ মাসে একবার দাম বাড়ানো উচিত। যত তাড়াতাড়ি এটি বাড়বে ততই ভাল।

গত বছরের ডিসেম্বরেই টেলিকম সংস্থাগুলি ট্যারিফ প্ল্যানগুলিকে অনেকটা ব্যয়বহুল করেছিল, প্রায় ৪০ শতাংশ পর্যন্ত দাম বাড়ানো হয়েছিল। আসলে, প্রচুর ইউজার থাকা সত্ত্বেও টেলিকম কোম্পানিগুলির গড় আয় অনেক কম। তাই সমস্ত অপারেটররা মিলে তাদের প্ল্যানগুলির দাম পরিবর্তন করতে পারে।
প্রশান্ত বলেন, বর্তমানে ইউজারদের এখন সাশ্রয়ী মূল্যের প্ল্যান প্রয়োজন। বর্তমান অর্থনৈতিক পরিস্থিতিতে রিচার্জ ব্যয়বহুল করা কোনও ভাল পরিকল্পনা নয়। তবে পরের ১২ থেকে ১৮ মাসের মধ্যে দুবার শুল্ক বাড়তে দেখা যেতে পারে। টেলিকম সংস্থাগুলি বাজারে স্থিতিশীল অবস্থায় থাকতে ছয় মাসের মধ্যে একবার তাদের রিচার্জ ব্যয়বহুল করে তুলবে। যদিও এখনও অবধি টেলিকম সংস্থাগুলির পক্ষ থেকে কিছুই বলা হয়নি।


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only