সোমবার, ২৭ জুলাই, ২০২০

চিত্রকূটে নাবালিকাদের দিয়ে খনিতে শিশু শ্রম! তদন্তের নির্দেশ


পুবের কলম ওয়েব ডেস্ক: অল্প বেতন দিয়ে জোর করে অনৈতিক কাজ করতে বাধ্য করা হচ্ছে উপজাতি সম্প্রদায়ের নাবালিকাদের। এই নাবালিকাদের দিয়ে এমন কিছু কাজ করানোর ঘটনা সামনে এসেছে, যা সমাজের চোখে অনৈতিক। সম্প্রতি এই ঘটনা প্রকাশ্যে আসার পর ইলাহবাদ হাইকোর্ট জেলা ম্যাজিস্ট্রেট, জেলার চেয়ারম্যান ও জেলা আইনজীবী কর্তৃপক্ষকে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে। 

সূত্রের খবর, ইলাহবাদ হাইকোর্টের শীর্ষ বিচারপতিকে এক ই-মেল পাঠিয়েছিলেন সুপ্রিম কোর্টে আইন অনুশীলনকারী ড. অভিষেক আত্রে। জনস্বার্থে দায়ের করা মামলাটি দেখে ইলাহবাদ হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চের শীর্ষ বিচারক সৌমিত্র দয়াল সিং রাজ্য প্রশাসক ও রাজ্যের চেয়ারম্যানকে জুলাইয়ের ২৮ তারিখের মধ্যে রিপোর্ট তৈরি করতে বলেছে। হাইকোর্টের পিটিশন সংক্রান্ত নোটিশও দু’দিনের জেলা প্রশাসক, চিত্রকূট ও চেয়ারম্যানকে পাঠানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। উপজাতি নাবালিকাদের দিয়ে অবৈধ কাজ করানোর বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলার পরবর্তী শুনানি হবে ২৮ জুলাই। শীর্ষ আদালতে আইন অনুশীলনকারী অভিষেক আত্রে ইলাহবাদ হাইকোর্টের শীর্ষ বিচারপতিকে পাঠানো ই-মেলে সেসব মিডিয়া রিপোর্টের প্রসঙ্গ তুলে এনেছেন যেখানে বলা হয়েছে, অনৈতিক কাজে জোর করে লাগানো হচ্ছে নাবালিকাদের। এর বিনিময়ে তাদের বেতনও অত্যন্ত কম দেওয়া হচ্ছে। 

এ ছাড়াও ১৯৮৬ সালে তৈরি শিশু শ্রম (নিষেধাজ্ঞা ও নিয়ন্ত্রণ) আইন লঙ্ঘনেরও অভিযোগ উঠছে। সম্প্রতি বেশ কিছু সূত্র থেকে জানা যায়, ইলাহাবাদের চিত্রকূট জেলায় উপজাতি সম্প্রদায়ের নাবালিকাদের অবৈধ খনিতে কাজে বাধ্য করছে কিছু ঠিকাদার। অভিযোগ উঠছে, খনিতে কাজ করে পয়সা তো দেওয়া হচ্ছে না উলটে তাদের যৌন ব্যবসাতেও নামানো হচ্ছে। উপরোক্ত নিদের্শাবলি দিয়ে,এলাহবাদ হাইকোর্ট জানাচ্ছে,‘রেকর্ডে থাকা উপাদানগুলি বিবেচনা করে আমরা জেলা ম্যাজিস্ট্রেট, চিত্রকূট এবং জেলা আইনজীবী কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যানকে  মিডিয়া গ্র&পের দেওয়া প্রতিবেদনে উল্লিখিত পুরো বিষয়টি তদন্তের জন্য নির্দেশ দেওয়া উপযুক্ত বলে মনে করেছি।’




একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only