শুক্রবার, ৩১ জুলাই, ২০২০

হিন্দুবিদ্বেষী ট্যুইট নেতানিয়াহু-পুত্র! এবার কি প্রতিক্রিয়া দেবেন মোদি?


পুবের কলম ওয়েব ডেস্ক: ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহুর ছেলে হিন্দু ধর্মের বিরুদ্ধে টু্যইট করে বিতর্কে জড়ালেন। বড়ছেলে ইয়াইর নেতানিয়াহু এর আগেও একাধিকবার সোশ্যাল মিডিয়ায় মুসলিম বিদ্বেষী মন্তব্য করে বিতর্কে জড়িয়েছে। এবার যুবক ইয়াইর তীব্র আপত্তিকর হিন্দুবিদ্বেষী টু্যইট করায় বিতর্ক এতদূর গড়ায় যে শেষমেষ ক্ষমা চেয়ে নেন প্রধানমন্ত্রীর পুত্র। ২৯ বছর বয়সি ইয়াইর বরাবরই তার বাবার ‘ইহুদি অনলি’ নীতির পক্ষে সাফাই দিয়ে পোস্ট ও ট্যুইট করেন। 


উল্লেখ্য, ইসরাইলের সঙ্গে ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির অতি ঘনিষ্ঠতার কথা সারা বিশ্ব জানে। নেতানিয়াহু-মোদি সুসম্পর্ক নিয়ে অনেক সমালোচনাও হয়েছে। গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী থাকাকালে প্রথমবার ইসরাইল যান। প্রধানমন্ত্রী হয়েও বছর দুয়েক ফের ইসরাইল যান। এর আগে কোনও ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী ইসরাইল যাননি। স্বাধীনত্তোর ভারতের সব সরকারই ইসরাইলের সঙ্গে কূটনৈতিক ও দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক সেভাবে প্রকাশ্যে অনেননি। মোদিই প্রথম খুলেআম সম্পর্ক গড়েন এবং তার জন্য গর্ববোধও করেন। যার একমাত্র কারণ হল, নেতানিয়াহুর মুসলিম বিদ্বেষী ভাবমূর্তি। তাই সে দেশে গিয়ে কাদিয়ানি নেতাদের সঙ্গেও উষ্ণ আলিঙ্গন করে ফোটোসেশনে অংশ নিয়ে মুসলিমদের উদ্দেশ্যে বিদ্বেষী বার্তা দেন মোদিজি। 

এতকিছুর পরেও নেতানিয়াহু-পুত্রের সর্বশেষ হিন্দু বিদ্বেষী কর্মকাণ্ড নিয়ে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে। তারওপর অতি সম্প্রতি ইসরাইল সরকার ইসমাইল খালদি নামে এক মুসলিমকে রাষ্ট্রদূত পদে নিয়োগ করেছে। যা দেশটির ইতিহাসে একেবারেই নজিরবিহীন এবং নেতানিয়াহু ঘরানার ১৮০ ডিগ্রি বিপরীত। এসব থেকে বিশেষজ্ঞরা অনুমান করছেন,তাহলে কি বিশ্ব রাজনীতিতে ইসরাইল বা নেতানিয়াহু তাঁর চিরাচরিত অবস্থান থেকে ইউটার্ন নিতে চাইছেন।  

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only