সোমবার, ২৭ জুলাই, ২০২০

নিরক্ষর অভিভাবক, ৩ গোল্ড মেডেল, ৬ মার্কিন বিশ্ববিদ্যালয়ে গবেষণার সুযোগ মেধাবী ফুলের ঝুলিতে


শুভায়ুর রহমান
রেজিনগর­ সহজভাবে যদি ব্যাখ্যা করা হয় তবে তার সারমর্ম হবে এমনই, প্রত্যন্ত এক গ্রামে অভাবী পরিবারে জন্ম। বাবা-মা দু’জনই নিরক্ষর। বাবা গ্রাম থেকে সবজি কিনে বাজারে বিক্রি করেন। অষ্টম পাশ মামার উৎসাহে পড়াশোনা শুরু। আর সেই পড়াশোনার পাঠ তাকে নিয়ে গেল সাফল্যের শিখরে। আলিগড় মুসলিম ইউনিভার্সিটি থেকে তিনটি গোল্ড মেডেল লাভ। পাশাপাশি আমেরিকার ৬টি ইউনিভার্সিটি থেকে একই সঙ্গে গবেষণার অফার পেয়েছেন। মুর্শিদাবাদের শক্তিপুরের জিনারাপাড়া গ্রামের মুহাম্মদ ফুল হোসেন সেখের গল্প। তার সাফল্যে এখন খুশি পরিবার, আত্মীয়স্বজন। 

জানা গিয়েছে,বাবা মান্নাজ সেখ দিনমজুর। পাশাপাশি গ্রাম থেকে সবজি কিনে বাজারে বিক্রি করে সংসার চালান। মা মীরা বিবি গৃহবধূ। মামা মহসিন সেখের উৎসাহ ও তত্ত্বাবধানে পড়াশোনা এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন বলে জানান মুহাম্মদ ফুল হোসেন সেখ। তার কথায়, জওহর নবোদয় কেন্দ্রীয় বিদ্যালয় থেকে মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পাসের পর আলিগড় মুসলিম ইউনিভার্সিটিতে ফিজিক্স অনার্স নিয়ে ভর্তি হয়েছিলাম। ২০১৮ সালে অনার্স সম্পূর্ণ হয়। কিছুদিন আগে ইউনিভার্সিটি কর্তৃপক্ষ আমার হাতে তিনটি মেডেল তুলে দেন। 

ইউনিভার্সিটি মেডেল (ফিজিক্স ডিপার্টমেন্ট টপার-২০১৮),ইউনিভার্সিটি মেডেল (ফ্যাকাল্টি অফ সায়েন্স টপার-২০১৮), আবদুল আজিজ (ডোনার) গোল্ড মেডেল ফর বিএসসি অনার্স-এর উপর আলিগড় মুসলিম ইউনিভার্সিটি থেকে ৩টি গোল্ড মেডেল পেয়েছি। আমার এখন মাস্টার্স ডিগ্রি চলছে,সামনেই ফাইনাল সেমিস্টার শেষ হবে। তারপরই আমারিকা পাড়ি দেব গবেষণার কাজে। একইসঙ্গে ইউনিভার্সিটি অফ ক্যানসাস, ক্যানসাস স্টেট ইউনিভার্সিটি, ওকলাহামা স্টেট ইউনিভার্সিটি, সাউদার্ন মেথোডিস্ট ইউনিভার্সিটি, ইউনিভার্সিটি অফ নেব্রাস্কা ও ইউনিভার্সিটি অফ টেনেসি, আমেরিকার এই ৬টি ইউনিভার্সিটি গবেষণা করার অফার দিয়েছে বলে জানান ফুল হোসেন সেখ। তবে তিনি ক্যানসাস ইউনিভার্সিটিতে পিএইচডির জন্য উড়ে যেতে চান। 

এ বছরই আলিগড় মুসলিম ইউনিভার্সিটিতে মাস্টার্স ডিগ্রি সম্পূর্ণ হবে। মূলত রিসার্চের জন্য বাকি ৫টি ইউনিভার্সিটি অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা দিতে চেয়েছিল। কিন্তু ইউনিভার্সিটি অফ ক্যানসাসের সুপারভাইজার প্রফেসর ডেভিড বেসন, যার অধীনে আমি নিউট্রিনো ফিজিক্সে কাজ করতে চাই তিনি খুব ভালো মানুষ। খুব কো-অপারেটিভ বলে জানান ফুল হোসেন সেখ। ফুল হোসেনরা দুই ভাই। ছোট ভাই আমির হোসেন সেখও পড়ছে। সাধারণ একটি পরিবার থেকে আলিগড় মুসলিম ইউনিভার্সিটি জয়, তারপর আমেরিকার মতো একটি দেশে পাড়ি দেওয়ার হাতছানি। অপেক্ষায় মুহাম্মদ ফুল হোসেন।


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only