বৃহস্পতিবার, ২ জুলাই, ২০২০

এবার চালু হচ্ছে রাজাবাজার থেকে হাওড়া ট্রাম পরিষেবা

পুবের কলমঃ বালিগঞ্জ-টালিগঞ্জের পর এবার ট্রাম পরিষেবা চালু হতে চলেছে হাওড়া ব্রিজ থেকে রাজাবাজার রুটে। বৃহস্পতিবার এই রুটে পরীক্ষামূলক ভাবে ট্রাম চালানো হয়। অপাতত ঠিক হয়েছে সকাল ৭টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত চলবে ট্রাম। প্রতি ২৫ মিনিট অন্তর এই ট্রাম চালানো হবে। প্রায় সাড়ে তিন মাস পরে  লোকসান হলেও বালিগঞ্জ থেকে টালিগঞ্জ পর্যন্ত চলছে ট্রাম। এবার পরের লক্ষ্য, বাকি ৫ রুটে ট্রাম পরিষেবা চালু করা। তার জন্যে ওভারহেড তারের মেরামতি ও লাইন সংষ্কারের কাজ করা হচ্ছে দ্রুত গতিতে।

শহরে গতি আনতে গিয়ে ক্রমে হারিয়ে যেতে বসেছে কলকাতার ট্রাম। তবে সেই গতি একেবারে বন্ধ হয়ে যায় লকডাউনের সময়ে। অবশেষে যাত্রী চাপ সামলানোর জন্য ফের পথে নামল ট্রাম। ১৪ জুন থেকে চালু হয়ে গিয়েছে শহরে ট্রাম পরিষেবা। ৪০ মিনিট অন্তর বালিগঞ্জ থেকে টালিগঞ্জ রুটে মিলছে এই পরিষেবা। সকাল ৭টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত পাওয়া যাচ্ছে এই পরিষেবা। এখন দু'কামরার ট্রাম চালানো শুরু হয়েছে। ট্রামের চালক ও কন্ডাক্টর উভয়েই পিপিই কিট পরে আছেন। যত আসন তত যাত্রী নিয়ে পরিষেবা চালু হয়েছে।

রাজ্য পরিবহন নিগম আশা করছে এখন থেকে যথেষ্ট  যাত্রী হবে ট্রামে৷ এখন ট্রিপ শেষ করে ফেরার পরে বালিগঞ্জ ও টালিগঞ্জ ডিপোতে স্যানিটাইজ করা হচ্ছে ট্রাম। হাওড়া ব্রিজ এলাকা ও রাজাবাজার ডিপোতেও একই ভাবে ট্রাম স্যানিটাইজ করা হবে। এর পরের লক্ষ্য কলকাতার বাকি ৪ ট্রাম রুটে যাত্রী পরিষেবা চালু করা। এসপ্ল্যানেড থেকে শ্যামবাজার, খিদিরপুর, গড়িয়াহাট, নোনাপুকুর এবং বিধাননগর থেকে হাওড়া ব্রিজ অবধি ট্রাম পথে যাতায়াত। যদিও এই রুটের একাধিক জায়গায় এখনও ওভারহেড তার ঠিক করা যায়নি। কোথাও আবার ট্রাম লাইনের ওপরে গাছ পড়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। সেই কাজ শেষ না হওয়া পর্যন্ত ট্রাম পরিষেবা আটকে থাকবে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only