বৃহস্পতিবার, ২৭ আগস্ট, ২০২০

টানা বৃষ্টিতে দেড়শো বছরের পুরোনো বাড়ি ভেঙে বৃদ্ধার মৃত্যু, বিস্তারিত পড়ুন

শতাব্দী প্রাচীন বাড়ির ধ্বংসাবশেষ ছবি খালিদুর রহিম( পাভেল)


পুবের কলম ওয়েব ডেস্ক: পূর্বাভাস মতো নিম্নচাপের বৃষ্টিতে জলমগ্ন হয়ে পড়ে শহরের কিছু নিচু এলাকা। যার মধ্যে রয়েছে, উত্তর কলকাতার সেন্ট্রাল অ্যাভিনিউ,  ঠনঠনিয়া কালি মন্দির চত্বর, খিদিরপুর হেস্টিংস মোড়, আলিপুর বডিগার্ড লাইন সহ কিছু জায়গায়। তবে কলকাতা পুরসভার উদ্যোগে অনেকক্ষেত্রেই জল অল্প সময়ের ব্যবধানে নামানো সম্ভব হয়েছে। অন্যদিকে, টানা ঝোড়ো হওয়া, বৃষ্টির জেরে ৫৫ নম্বর বেলেঘাটা মেন রোডে একটি দেড়শো বছর পুরোনো বাড়ি ভেঙে পড়ে মৃত্যু হল সত্তর বছর বয়সী প্রতিমা সাহা নামে এক বৃদ্ধার। আহত হয়েছেন তার ছেলে রাজেশ সাহা(৪৭)। 

পুলিশ সূত্রে খবর, বৃহস্পতিবার ভোররাতে ঘটনাটি ঘটে। ঘটনার পর চাঞ্চল্য ছড়ায় এলাকায়। ঘটনার পরপরই ছুটে আসেন ডিএমজি গ্রুপের কর্মীরা। ধ্বংসস্তুপ থেকে উদ্ধার করে রাজেশ বাবু ও তাঁর বৃদ্ধা মাকে। তাদের নিয়ে যাওয়া হয় এনআরএস হাসপাতালে। পুরসভা থেকেও বাড়ি রিপিয়ারিং করার কথা বলা হয়েছিল বলে জানান, এলাকার বিদায়ী কাউন্সিলর। এদিকে বৃহস্পতিবার রাতভর বৃষ্টির জেরে জলমগ্ন সংশ্লিষ্ট এলাকাগুলোতে হাটু জল জমে যায়। কারও বাড়িতে রাস্তার জমা নোংরা জল ঢুকে যায়। অনেক দোকান ঘরেও জল ঢুকে গি‌য়ে জিনিসপত্র নষ্ট হয়। সমস্যায় পড়েন এলাকার ফুটপাথ বাসিন্দারাও। ডুবে যায়

পানীয় জলের কলও। একই ছবি ধরা পড়ল সেন্ট্রাল অ্যাভিনিউ চত্বরেও। গোটা রাস্তা জলমগ্ন। বিজেপির পার্টি অফিস চত্বরেও জল জমে যায়। বৃষ্টির মধ্যেই লাইন দিয়ে দ্বিতীয় হুগলী ব্রিজের ওপর দাঁড়িয়ে একের পর এক লরি, খিদিরপুর হেস্টিংস মোড়েও জল জমে যায়।খিদিরপুরের রমানাথ পাল রোড থেকে শুরু করে ভূকৈলাস রোড সর্বত্রই জলমগ্ন হয়ে পড়ে।পাশাপাশি খিদিরপুরের বেশ কিছু বাড়িতে জল ঢুকে যাওয়ায় সমস্যায় পড়েন বাসিন্দারা।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only