বৃহস্পতিবার, ২০ আগস্ট, ২০২০

'তিরুবনন্তপুরম বিমানবন্দর আদানি গোষ্ঠীর হাতে গেলে সাহায্য করব না', হুঁশিয়ারি বিজয়নের

 


তিরুবনন্তপুরম, ২০ আগস্ট: তিরুবনন্তপুরম  বিমানবন্দর আদানি গোষ্ঠীর হাতে তুলে দেওয়ার সিদ্ধান্তে চরম আপত্তি জানাল কেরল সরকার এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হলে তাঁরা কোনওরকম সাহায্য করবে না প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে চিঠি দিয়ে পরিষ্কার একথা জানিয়ে দিলেন কেরলের মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন ওই চিঠিতে কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে বিমানবন্দর হস্তান্তরের সিদ্ধান্ত পুনরায় খতিয়ে দেখারও অনুরোধ জানিয়েছেন তিনি

আমেদাবাদ, লখনউ মেঙ্গালুরু বিমানবন্দরের পর এবার কেন্দ্রের নিশানায় গুয়াহাটি, জয়পুর তিরুবনন্তপুরম বিমানবন্দর প্রধানমন্ত্রীর ঘনিষ্ঠ বলে পরিচিত গৌতম আদানির মালিকানাধীন আদানি গোষ্ঠীর হাতে বিমানবন্দরের লিজ দেওয়ায় আপত্তি জানায় কেরল সরকার প্রধানমন্ত্রীকে লেখা এক চিঠিতে মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন জানান, এই সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের কাজে তারা সহযোগিতা করবে না চিঠিতে তিনি লেখেন, 'আপনার কাছে অনুরোধ এই বিষয়ে হস্তক্ষেপ করুন, যাতে সিদ্ধান্তটি পুনরায় খতিয়ে দেখা হয় নতুবা এই কাজে আমাদের সহযোগিতা করা সম্ভব হবে না'

চিঠিতে আরও উল্লেখ করা হয়, 'রাজ্যের তরফে একাধিকবার অনুরোধ করা হয় কেন্দ্রের কাছে কিন্তু কোনও গুরুত্ব দেওয়া হয়নি ২০০০ সালে রাজ্য বিনামূল্যে বিমানবন্দরের জন্য জমি দিয়েছিল ওই সময় কেন্দ্রীয় অসামরিক বিমান মন্ত্রকের তরফে আশ্বস্ত করা হয় বিমান বন্দরটি বেসরকারিকরণ হলে রাজ্যের বক্তব্যও শোনা হবে এক্ষেত্রে তা হয়নি বহুবার আপত্তি জানানো সত্ত্বেও কেন্দ্র কোনও গুরুত্বই দিচ্ছে নাতাই রাজ্যবাসীর বিরুদ্ধে গিয়ে কেন্দ্রকে কোনও সহযোগিতা করতে পারবে না সরকার'শুধু চিঠি লিখেই আপত্তি জানাননি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে দেখাও করেন পিনারাই বিজয়ন কেরল সরকার বিষয়ে হাইকোর্টে সুপ্রিম কোর্টেরও দ্বারস্থ হয়েছে তবে সরকারি সূত্রের ব্যাখ্যা, আদালতের স্থগিতাদেশ না থাকায় সিদ্ধান্ত নিতে বাধা নেই কিন্তু বিজয়ন ফের চিঠি লিখেছেন মোদিকে মনে করিয়ে দিয়েছেন, এই বিমানবন্দরের জমি নিখরচায় দিয়েছিল রাজ্য সরকার আদানির হাতে বিমানবন্দর গেলে তাঁরা সহযোগিতা করবেন না বলে স্পষ্ট জানিয়েছেন বিজয়ন

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only