বুধবার, ২৬ আগস্ট, ২০২০

করোনা থেকে স‍ুস্থ হওয়ার পরও হ‍ুমকির ম‍ুখে নার্স



করোনা মহামারি নিয়ে মাঝেমধ্যে কলকাতা ও তার লাগোয়া জেলাগুলিতে অমানবিক ঘটনা ঘটে চলেছে। কখনও করোনা রোগী সন্দেহে কাউকে সাহয্য করা থেকে বিরত থাকা, আবার করোনা রোগী সন্দেহে সেই ব্যক্তির ধারকাছে না যাওয়া সহ একাধিক অমানবিক ঘটনা ঘটে চলেছে। সোমবার রাতেও একই ঘটনা ঘটল বেহালার রায় বাহাদুর রোডে। 


সম্প্রতি, ওই এলাকায় আলিপুর কমান্ড হাসপাতালের একজন নার্স করোনা জয়ী হয়ে হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফিরেছেন। তাঁকে দিন কয়েক ধরেই প্রতিবেশীরা পাড়া ছাড়া করার হুমকি দিচ্ছে। কী ঘটেছে, যে এ ধরনের ঘটনা ঘটছে? স্থানীয় সূত্রে খবর, আলিপুর কমান্ড হাসপাতালের ওই নার্স সংক্রমিত হন। গত ১০ আগস্ট করোনা পজেটিভ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন। এমতাবস্থায় সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে তাঁর ছেলে ও স্বামীও বাড়িতেই আইসোলেশনে থাকেন। 


এরপর করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ হয়ে বেহালার বাড়িতে ফেরেন ওই নার্স। এরপর থেকেই শুরু হয় ঝঞ্ঝাট। সংক্রমণের আশঙ্কা করে প্রতিবেশীরা চড়াও হয় বাড়িতে। তারা পরিষ্কার ওই নার্স পরিবারকে জানায়, তিনি যে পেশায় আছেন তাতে সংক্রমণের আশঙ্কা প্রবল। তাই তিনি চাকরি ছাড়ান। না হয় এলাকা ছেড়ে অন্যত্র চলে যান। পরিস্থিতি এতটাই খারাপ হয় যে প্রতিবেশীরা পুরসভার সাফাইকর্মীকেও নার্সের বাড়ির জঞ্জাল সংগ্রহ না করার পরামর্শ দেয়। 


এমতাবস্থায় পরিবারটি  পুলিশের দ্বারস্থ হন। বেহালা থানার পুলিশ ওই নার্সকে পূর্ণ সহযোগিতা করার আশ্বাস দিয়েছেন। পুুলিশ ওই এলাকায় গিয়ে প্রতিবেশীদের আশ্বস্ত করে আসে। তারপরও হেনস্থা কমেনি বলেই আক্ষেপ করেছেন ওই নার্স। উল্লেখ্য, এর আগে বেহালা পর্ণশ্রীতে এক চিকিৎসককে এ ধরনের হেনস্থার মুখে পড়তে হয়েছে। সেবারও পুলিশকেই পথে নামতে হয়। মানুষকে বোঝাতে হয়। 

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only