মঙ্গলবার, ২৫ আগস্ট, ২০২০

যোগীরাজ্যে গুন্ডারাজ ! প্রকাশ্যে খুন সাংবাদিককে

 

বালিয়া, ২৫ আগস্ট: উত্তরপ্রদেশে ফের প্রকাশ্যে সাংবাদিক খুন। সোমবার রাত ৯টা নাগাদ বালিয়ায় নিজের গ্রামের বাড়ির কাছেই দুষ্কৃতিদের গুলিতে মারা যান ৪২ বছরের সাংবাদিক রতন সিং। সম্পত্তিগত বিবাদের কারণেই এই হত্যা বলে দাবি পুলিশের। যদিও পুলিশের এই তত্ত্ব মানতে নারাজ নিহত সাংবাদিকের বাবা। 


সাংবাদিক বিক্রম যোশীর হত্যাকাণ্ডের স্মৃতি এখনও টাটকা। ভাইঝির শ্লীলতাহানির প্রতিবাদ করায় উত্তরপ্রদেশে প্রকাশ্য রাস্তায় গুলি করে খুন করা হয় তাঁকে। সেই ঘটনার একমাস কাটতে না কাটতেই ফের খুন সাংবাদিক। বালিয়ার এই ঘটনায় তোলপাড় রাজ্য। ঠিক কী হয়েছিল ঘটনাটি? সোমবার বালিয়ার সাংবাদিককে ধাওয়া করে গুলি চালায় দুষ্কৃতিরা। গুলিবিদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় সাংবাদিক রতন সিংয়ের। তিনি একটি বেসরকারি নিউজ চ্যানেলে কর্মরত ছিলেন। উত্তরপ্রদেশ পুলিশের দাবি, এই খুনের সঙ্গে সাংবাদিকতার কোনও সম্পর্ক নেই। সম্পত্তিগত বিবাদের জেরেই খুন করা হয় তাঁকে। 


এই প্রসঙ্গে পুলিশ কী বলছে? আজমগড় জেলার ডিআইজি সুভাষ দুবে জানান, 'ঘটনাস্থল থেকে ৩ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পরে আরও একজন অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে। মৃত ব্যক্তি সাংবাদিক হলেও, এরসঙ্গে সাংবাদিকতার কোনও যোগ নেই।' যদিও মূতের পরিবার দাবি করছে অন্য কথা। মৃতের বাবা বিনোদ সিং দাবি করেছেন, 'কোনও সম্পত্তিগত বিরোধ ছিল না। দয়া করে ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখুন। পুলিশ গল্প তৈরি করছে'।


এতো কিছুর পরও পুলিশ নিজেদের দাবিতে অটল। তারা জানিয়েছে, রতন সিং আসলে থাকতেন শহরে। সম্পত্তির ভাগ নিয়ে গ্রামের বাড়িতে আসতেন কথা বলতে। দুষ্কৃতিদের সঙ্গে বহুদিন ধরেই সম্পত্তি নিয়ে ঝামেলা চলছিল পরিবারের। অভিযুক্তরা একটি সম্পত্তিকে নিজেদের বলে দাবি করে তার চারপাশে পাঁচিল তুলেছিলো। এমনকী ওই জমিতে একটি অস্থায়ী কাঠামোও তৈরি করে তাঁরা। কিন্তু সাংবাদিক গিয়ে সেগুলো ভেঙে দেন। সেই ঘটনা নিয়ে ঝামেলা শুরু হলে সাংবাদিককে গুলি করা হয়, তিনি ঘটনাস্থলেই মারা যান বলে দাবি আজমগড় রেঞ্জের ডিআইজি সুভাষ দুবের। 


এদিকে এই ঘটনায় নিহতের পরিবারকে সমবেদনা জানিয়েছেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। তাদের ১০ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে বলে ঘোষণা করেছেন তিনি। 


এদিকে এই হত্যা প্রসঙ্গে রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন কংগ্রেস নেত্রী প্রিয়াঙ্কা গান্ধি বঢ়রা। রবি ও সোমবার রাজ্যে ঘটে যাওয়া অপরাধমূলক ঘটনার একটি তালিকা তুলে ধরে ট্যুইটারে লেখেন, দুদিনে রাজ্যে এই হারে অপরাধ ঘটেছে। রাজ্য সরকার পরিস্থিতি আড়াল করার চেষ্টা করছে। কিন্তু রাস্তার মোড়ে মোড়ে এখন অপরাধের তাণ্ডব চলছে।'


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only