সোমবার, ৩১ আগস্ট, ২০২০

‘পদত্যাগ চাই এখনই’ স্বৈরাচারী নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে একজোট হচ্ছেন ইসরাইলিরা


তেল আবিব, ৩১ আগস্টঃ বিন্দুমাত্র লজ্জা নেই। লজ্জা থাকলে অনেক আগেই পদত্যাগ করতেন ইসরাইলের যুদ্ধবাজ প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহু। তিনি চান এখনও সর্বোচ্চ ক্ষমতাটি উপভোগ করতে। কিন্তু এভাবে আর কতদিন চলবে? খোদ ইসরাইলিরাই তো আর নেতানিয়াহুকে নেতা হিসাবে মনে করছেন না। রাজধানী তেল আবিব থেকে শুরু করে বিভিন্ন ইহুদি শহরে বিক্ষোভই তার প্রমাণ। দেশের মানুষ বদল চাইছেন। 


দুর্নীতিবাজ সরকারপ্রধানের কোনও নির্দেশই তারা মানবেন না বলে ঘোষণা করেছেন। সেই ঘোষণাকে সামনে রেখে আবারও নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে হাজারো মানুষ রাস্তায় বের হয়ে বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন। দুর্নীতি ও মহামারির ব্যবস্থাপনায় ব্যর্থতার অভিযোগে তার বিরুদ্ধে সাপ্তাহিক ছুটির দিনগুলোতে বিক্ষোভ চলছে। শনিবার জেরুসালেমের এ বিক্ষোভে প্রায় ২০ হাজার মানুষ অংশ নেন। তবে আয়োজকরা বলছেন এ সংখ্যা ছিল ৩৭ হাজার। 


নেতানিয়াহুর পদত্যাগ চেয়ে এ বিক্ষোভ চলছে ১১ সপ্তাহ ধরে। ইসরাইলের অন্যান্য শহরেও বিক্ষোভ হয়েছে। সিজারিয়ায় নেতানিয়াহুর ব্যক্তিগত বাড়ির আশপাশেও দেখা মিলেছে ক্ষুব্ধ মানুষজনের। জেরুসালেমের প্রধান মিছিলে বিক্ষোভকারীরা ইসরাইলি পতাকা ও বিক্ষোভের কালো পতাকা প্রদর্শন করেছে। এদিকে এই বিক্ষোভ দেখেও না দেখার অভিনয়টা বেশ ভালো করে চলেছেন প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহু। 


তার কারণ, তিনি বোঝাতে চাইছেন যে এসব ছোট ইস্যুর দিকে তিনি খেয়াল রাখেন না। কারণ নেতানিয়াহু এটা ভালোই জানেন যে, বিক্ষোভকারীরা তার কপালে চিন্তার ভাঁজ বা ঘাম দেখতে পেলে অন্য বিপদ দানা বাঁধতে পারে। তাই তিনি এসব নিয়ে মাথা ঘামান না। বিক্ষোভকারীদের দাবি, দুর্নীতি ও করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় ব্যর্থতার দায়ে অবিলম্বে নেতানিয়াহুকে সরে যেতে হবে। 

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only