বুধবার, ২৬ আগস্ট, ২০২০

বনগাঁয় সেফ হোম চালু, ‘করোনা যোদ্ধা’ হিসেবে কাজ করবেন পুরসভার সাবেক চেয়ারপার্সন জ্যোৎস্না আঢ্য

 


এম এ হাকিম, বনগাঁ :  উত্তর ২৪ পরগণার বনগাঁয় বুধবার উপসর্গহীন করোনা রোগীদের জন্য ‘সেফ হোম’ চালু হয়েছে। পুরসভার সাবেক চেয়ারম্যান ও বর্তমান পুর প্রশাসক মণ্ডলীর সদস্য জ্যোৎস্না আঢ্য স্বেচ্ছায় সেফ হোমে ‘করোনা যোদ্ধা’ হিসেবে কাজ করবেন বলে জানা গিয়েছে। করোনা জয়ী জ্যোৎস্না দেবী সম্প্রতি বনগাঁ পুরসভার নির্বাহী আধিকারিকের কাছে এক আবেদনে সেখানে বিনা পারিশ্রমিকে কাজ করবেন বলে জানান।    

তিনি বলেন, ‘চলতি আগস্ট মাসের শুরুতে আমি করোনা আক্রান্ত হয়েছিলাম। পরবর্তীতে করোনা জয় করে ‘নেগেটিভ’ হয়েছি। আমরা জানি, করোনা মানেই মৃত্যু নয়। মানুষের সেবার মধ্য দিয়ে ওই রোগকে সহজেই জয় করা যায়। সেজন্য আমি কোভিড আক্রান্ত মানুষের মনোবল বাড়ানোর জন্য সম্পূর্ণ বিনাপারিশ্রমিকে বনগাঁ পুরসভা পরিচালিত সেফ হোমে কাজ করতে চাই।’  

ওই আবেদনের পরেই বুধবার পুরসভার নির্বাহী আধিকারিকের পক্ষ থেকে মহতী উদ্দেশ্যকে স্বাগত জানিয়ে জ্যোৎস্না আঢ্যকে ‘চিফ কো-অর্ডিনেটর’ হিসেবে দায়িত্ব পালনের সবুজ সঙ্কেত দিয়েছেন।   

এদিনই বনগাঁ পুরসভা পরিচালিত ‘সেফ হোম’-এর সূচনা হয়েছে। বনগাঁর  পুর প্রশাসক শঙ্কর আঢ্য বলেন, ৫০ শয্যা বিশিষ্ট সেফ হোম চালু হল। এখানে সবসময় চিকিৎসক ও নার্সরা রোগীদের দেখাশোনা করবেন। এছাড়া সর্বক্ষণ অ্যাম্বুলেন্স, বিনোদন ব্যবস্থা, সাউন্ড সিস্টেম, ইন্টারকম ইত্যাদির ব্যবস্থা থাকছে। থাকছে চারবেলা খাওয়ার ব্যবস্থাও।  



পুর এলাকায় উপসর্গহীন যারা করোনা আক্রান্ত এবং বাড়িতে যাদের থাকার উপযুক্ত পরিকাঠামো নেই তাঁরাই সেফ হোমে থাকবেন বলে পুরসভা সূত্রে জানা গিয়েছে। এখানকার রোগীদের সম্পূর্ণ ব্যয়ভার বহন করবে বনগাঁ  পৌরসভা। এ ধরণের উদ্যোগে বনগাঁর সাধারণ মানুষজন বেশ খুশি।      

এদিকে, বনগাঁর পুর প্রশাসক শঙ্কর আঢ্যের সহধর্মিণী ও পুরসভার সাবেক চেয়ারপার্সন জ্যোৎস্না আঢ্য ‘করোনা যোদ্ধা’ হিসেবে স্বেচ্ছায় বিনাপারিশ্রমিকে সেফ হোমে সেবামূলক কাজ করতে চাওয়ায় বিভিন্ন মহল থেকে তাঁকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানানো হয়েছে। তাঁর এ ধরণের পদক্ষেপে করোনা মহামারীতে অন্যরাও সাধারণ মানুষের সেবায় উদ্বুদ্ধ হতে পারেন বলে মনে করছেন অনেকেই।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only