বুধবার, ২৬ আগস্ট, ২০২০

মোদির ‘চায়ের দোকান’ ছিল কি বাস্তবে ? কি বলছে আর টি আই রিপোর্ট ? পড়ুন বিস্তারিত

 


পুবের কলম ওয়েব ডেস্ক:প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি দাবি করে থাকেন যে একজন চা-ওয়ালা থেকে তিনি দেশের প্রধানমন্ত্রী হয়েছেন। তারপরই জনসংযোগ করতে বিজেপি শুরু করেছিল ‘চায়ে পে চর্চা’। সত্যিই কি বাল্যকালে কোনও সময় ‘চা-ওয়ালা’ ছিলেন বর্তমান প্রধানমন্ত্রী? তাহলে সেই চায়ের দোকান কোথায় ছিল? জানতে তথ্য জানার অধিকার আইনে (আরটিআই) আবেদন করেছিলেন এক ব্যক্তি। জবাবে রেল জানিয়েছে, তাদের কাছে এই ধরনের কোনও তথ্যই নেই।

 ছোটবেলায় গুজরাতের ভাডনগর স্টেশনের বাইরে বাবার চায়ের দোকানে কাজ করার অভিজ্ঞতার কথা প্রায়ই বলে থাকেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। কিন্তু সেই দোকান সম্পর্কে কোনও তথ্যই নেই পশ্চিম রেলের কাছে। তথ্য জানার আইনে এক ব্যক্তির করা আবেদনের এভাবেই নিষ্পত্তি করল কেন্দ্রীয় তথ্য কমিশন। ভাডনগর স্টেশন চত্বরে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাবা দামোদরদাস মোদির চায়ের দোকান সম্পর্কে তথ্য জানতে চেয়ে দু’বছর আগেই পশ্চিম রেলের সেন্ট্রাল পাবলিক ইনফরমেশন অফিসারের কাছে প্রথমবার আবেদনটি করেছিলেন আইনজীবী তথা সমাজকর্মী পবন পারেখ। তার কোনও জবাব না আসায়, তিনি ফের দ্বিতীয়বার আরটিআই করেন। সেখানে তিনি জানতে চান যে কোন সালে ওই দোকানটির লাইসেন্স মঞ্জুর হয়। সেই সংক্রান্ত কোনও নথি পাওয়া যাবে কি না। তবে প্রথম পিটিশন পাওয়ার বিষয়টি অস্বীকার করে সেন্ট্রাল পাবলিক ইনফরমেশন অফিসার জানান যে ২০২০ সালের ১৭ জুনের আগে এই ধরনের কোনও আবেদন তাঁর কাছে আসেনি। যদিও পারেখের দ্বিতীয় পিটিশনটি পাওয়ার কথা তিনি স্বীকার করলেও জানিয়েছেন যে সময়ের চাযের দোকান সম্পর্কে তথ্য চাওয়া হয়েছে তা অনেক আগের। এত আগের কোনও তথ্য রেলের আহমেদাবাদ ডিভিশনের কাছে নেই।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only