শনিবার, ১ আগস্ট, ২০২০

আবারও সেরার তালিকায় বাংলা, মানুষের সমস্যার নিষ্পত্তি করে পুরষ্কার


পুবের কলম ওয়েব ডেস্কঃ  করোনা অতিমারীর মধ্যেও রাজ্য সরকারের জন্য বড় স্বীকৃতি। মুখ্যমন্ত্রীর দফতরের অধীনে থাকা জন অভিযোগ সেল তাদের অসাধারণ সাফল্যের জন্য জিতে নিল স্কচ প্ল্যাটিনাম পুরস্কার। সরকারি প্রকল্পের সুযোগ সুবিধা ও পরিষেবা নিয়ে সাধারণ মানুষের অভাব অভিযোগ শুনে তার নিষ্পত্তি করতে গত বছর মুখ্যমন্ত্রীর দফতরে এই জন অভিয়োগ সেল চালু রয়েছে। বৃহস্পতিবার নতুন দিল্লিতে ৬৬তম স্কচ সামিটে স্কচ ফাউন্ডেশনের তরফে ডিজিটাল ইন্ডিয়া কর্মসূচির সার্থক রূপায়ণের জন্য বিভিন্ন সরকারি প্রকল্পকে পুরস্কৃত করে। একটি প্ল্যাটিনাম, তিনটি সোনা ও ১০ টি রৌপ্য পুরস্কার দেওয়া হয়। সেখানে এ রাজ্যের জন অভিযোগ সেল প্ল্যাটিনাম পদক লাভ করেছে।
নবান্নের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, মুখ্যমন্ত্রীর দফতরে ওই জন অভিযোগ সেল চালু হওয়ার পর থেকে এ পর্যন্ত আট লাখ ১৬ হাজার আবেদন জমা পড়েছে। তার মধ্যে ৯৫ শতাংশের মীমাংসা করা সম্ভব হয়েছে। এই বছর স্কচ প্লাটিনাম সম্মানের জন্য বিভিন্ন বিভাগে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে প্রায় চার হাজার মনোনয়ন জমা পড়েছিল। তার মধ্যে থেকে সেরার স্বীকৃতি পেয়েছে মমতার বাংলাই।
গত কয়েক বছর ধরে বাংলায় যে উন্নয়নের কর্মকাণ্ড চলছে তাকে স্বীকৃতি দিয়েছে জাতীয় এবং আন্তর্জাতিক বিভিন্ন সংস্থা। বাংলার একাধিক ক্ষেত্র ভালো কাজ করার জন্য স্কচ অ্যাওয়ার্ড জিতে নিয়েছে। এবার বাড়তি পাওনা সেই তালিকায় যুক্ত হল  স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী দফতর।
উল্লেখ্য, ১৯৭৭ সাল থেকে আর্থসামাজিক প্রেক্ষাপটে সার্বিক বৃদ্ধি নিয়ে কাজ করছে জাতীয় নিরীক্ষক সংস্থা স্কচ গোষ্ঠী। বিভিন্ন ক্ষেত্রে অভিনব প্রকল্প এবং সেগুলির বাস্তবায়নের জন্য এর আগে ৩১টি ‘স্কচ অ্যাওয়ার্ড’ পেয়েছে মমতা সরকার।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only