শনিবার, ৮ আগস্ট, ২০২০

মসজিদ উদ্বোধন মন্তব্যে যোগীকে ক্ষমা চাইতে হবে দাবি সপার

পুবের কলম ওয়েব ডেস্ক: সুপ্রিম কোর্টের রায়ে অযোধ্যায় বিতর্কিত এলাকা ছেড়ে অন্যত্র মসজিদ গড়ার কথা বলা হয়েছিল। সেইমতো মসজিদ তৈরি হলে তার উদ্বোধনে কি যাবেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ? জবাবে যোগীর উত্তর ছিল ‘না’। একজন মুখ্যমন্ত্রী কীভাবে এই ধরনের জবাব দিতে পারেন তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে রাজ্যের প্রধান বিরোধী দল সমাজবাদী পার্টি (সপা)। সপার বক্তব্য, একজন মুখ্যমন্ত্রী তাঁর রাজ্যের সব মানুষের মুখ্যমন্ত্রী। রাজ্যের সব ধর্মের মানুষের মুখ্যমন্ত্রী। সেক্ষেত্রে তিনি কীভাবে একপেশে ও পক্ষপাতিত্বমূলক জবাব দিতে পারেন? এই ধরনের মন্তব্য করার জন্য যোগীর ক্ষমা চাওয়া উচিত বলেও দাবি করেছে সপা।

অযোধ্যায় মসজিদ নির্মাণ হলে তার উদ্বোধন অনুষ্ঠানে যাবে না বলে মন্তব্য করার জন্য ক্ষমা চাইতে হবে মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথকে। শুক্রবার এমনই দাবি জানিয়েছে সমাজবাদী পার্টি। উল্লেখ্য, বুধবার অযোধ্যায় ভূমিপুজো অনুষ্ঠানের পর এক টিভি চ্যানেলকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে যোগী বলেছিলেন, ‘এক জন যোগী এবং একজন হিন্দু হয়ে তিনি মসজিদ উদ্বোধন অনুষ্ঠানে যেতে পারেন না।’ যোগীর এই মন্তব্যের সমালোচনা করেছে সপা। 

সপার মুখপাত্র পবন পান্ডে বলেন, এই ধরনের মন্তব্য করে উনি শপথ ভেঙেছেন যা তিনি মুখ্যমন্ত্রীর কুর্সিতে বসার সময় নিয়েছিলেন। পবনের কথায়, ‘উনি গোটা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী, শুধুমাত্র হিন্দু সম্প্রদায়ের নয়। রাজ্যে হিন্দু-মুসলিম জনসংখ্যা যাই হোক না কেন তিনি সকলের মুখ্যমন্ত্রী। মুখ্যমন্ত্রীর মুখে এই ধরনের ভাষা অমর্যাদাকর। এই ধরনের মন্তব্যের জন্য তাঁর উচিত জনগণের কাছে ক্ষমা চাওয়া।’ কংগ্রেসের তরফে অবশ্য যোগীর এই মন্তব্যের কোনও প্রতিক্রিয়া দেওয়া হয়নি। কংগ্রেস বিষয়টি নিয়ে মন্তব্য করতে নারাজ। 

বুধবার টিভি চ্যানেলকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ঠিক কি বলেছিলেন যোগী? সেখানে যোগী বলেছিলেন, ‘‘যদি আপনারা আমাকে একজন মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে প্রশ্ন করেন সেক্ষেত্রে যে কোনও সম্প্রদায়ের ধর্মীয় বিশ্বাস সম্পর্কে আমার কোনও সমস্যা নেই। কিন্তু আপনারা যদি একজন যোগী হিসেবে আমাকে প্রশ্ন করেন, আমি নিশ্চিতভাবেই যাব না কারণ একজন হিন্দু হিসেবে আমার অধিকার রয়েছে আমার ‘উপাসনা বিধি’ প্রকাশ করার এবং সেইমতো কাজ করার।’ মুখ্যমন্ত্রী আরও বলেন, ‘‘আমি না ‘বাদী’ না ‘প্রতিবাদী’। সেজন্য না আমাকে আমন্ত্রণ জানানো হবে, আর না আমি যাব। তাছাড়া আমি জানি, আমি এমন কোনও আমন্ত্রণ পাব না।’ মুখ্যমন্ত্রীর কথায়, ‘মাথায় ফেজ টুপি পরে রোযা-ইফতারে যাওয়া ধর্মনিরপেক্ষতা নয়, মানুষ জানে এটা নাটক। বাস্তবটা কি মানুষ জানে।’        

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only