সোমবার, ৩ আগস্ট, ২০২০

ভরসন্ধ্যায় রাস্তায় পিটিয়ে মারার অভিযোগ বাগুইআটিতে



পুবের কলম, ওয়েব ডেস্কঃ  পিটিয়ে খুনের অভিযোগে চাঞ্চল্য। রবিবার সন্ধ্যায় ঘটনাটি ঘটেছে বিধাননগর পুরনিগম অঞ্চল আট নম্বর ওয়ার্ডের অন্তর্গত পল্লীশ্রী ক্লাবের সামনে। মৃতের নাম স্বপন রাজবংশী (৫২)। পুলিশ এই ঘটনার মূল অভিযুক্ত কার্তিক রাজবংশী ওরফে ছোটনকে গ্রেপ্তার করেছে এবং বাকিদের খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে। ছোটন দক্ষিণ দমদম পুরো বাসিন্দা বলে জানা গিয়েছে।
পুলিশ সূত্রে খবর, স্থানীয় অর্জুনপুরের মাছের ব্যবসা করতেন মৃত স্বপন রাজবংশী। রবিবার সন্ধ্যায়ও মাছ বিক্রি করে বাড়ি ফিরছিলেন তিনি। সেই সময় পল্লীশ্রী ক্লাবের সামনে একা পেয়ে তাঁর পথ আটকায় ছোটন সহ কিছু দুষ্কৃতী। অভিযোগ, করনাকালে রাস্তা ফাঁকা পেয়ে স্বপনকে ঘিরে ধরে বেধড়ক মারধর শুরু করে ছোটনের দলবলের লোকেরা। রাস্তার পাশের নর্দমায় ফেলে চলে এলোপাথাড়ি কিল, ঘুষি, লাথি। এরপর স্বপনবাবুর আর্তনাদ চিৎকার শুনে বাসিন্দারা ছুটে আসেন। স্থানীয়দের ছুটি আসতে দেখে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায় অভিযুক্ত ও তার সঙ্গীরা। অন্যদিকে বাসিন্দাদের কাছে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে স্বপন রাজবংশীকে গুরুতর জখম অবস্থায় উদ্ধার করে পার্শ্ববর্তী গোরাবাজার একটি প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে যাওয়ার পথেই তার মৃত্যু হয়েছে বলে খবর। ভরসন্ধ্যায় রাস্তার উপরে পিটিয়ে মারার এই ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে অর্জুনপুর অঞ্চলে। কি নিয়ে বিবাদ ? বিধাননগর পুলিশ সূত্রের খবর, স্বপনের সঙ্গে ছোটনের আর্থিক লেনদেন ছিল। সেই সংক্রান্ত বিষয়ে তাদের বিবাদ চলছিল। রবিবার সন্ধ্যায় তাদের সেই অশান্তি নেমে আসে রাস্তায় এবং এর জেরেই বেঘোরে প্রাণ গেল স্বপন রাজবংশীর। তবে, দু'জনের মধ্যে আর্থিক সংক্রান্ত বিবাদ ছাড়া অন্য কোন ঘটনা জড়িত রয়েছে কিনা তা জানতে তদন্ত শুরু করেছে বাগুইআটি থানার পুলিশ।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only