মঙ্গলবার, ৪ আগস্ট, ২০২০

নিম্নচাপের জেরে বুধবারও ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা


প‍ুবের কলম প্রতিবেদক‍‌: পূর্বাভাস মতোই মঙ্গলবার থেকে নিম্নচাপের জেরে দক্ষিণবঙ্গে জুড়ে শুরু হয়েছে ভারী বৃষ্টিপাত। আলিপুর আবহাওয়া দফতরের তরফে জানানো হয়েছে বুধবারও আবহাওয়া অপরিবর্তীতই থাকবে। এদিনের মতোই সকাল থেকে মেঘলা আকাশ। কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গের একাধিক জেলায় দফায় দাফায় ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা। হাওয়া অফিসের তরফে জানানো হয়েছে কলকাতা, হাওড়া, হুগলি, দুই চব্বিশ পরগনা, পূর্ব বর্ধমান, নদিয়া, পূর্ব মেদিনীপুরে আগামী ২৪ ঘণ্টা ভারী বৃষ্টিপাত হবে। বাকি জেলাগুলোতেও মাঝারি বৃষ্টিপাত হওয়ার সম্ভাবনা।

আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, উত্তর বঙ্গোপসাগরে ঘনীভূত হয়েছে নিম্নচাপ। তার জেরে আরও শক্তিশালী হয়েছে মৌসুমী অক্ষরেখা। এর প্রভাবেই মঙ্গলবার এবং বুধবার, এই দু’দিন দক্ষিণবঙ্গের সব জেলাতেই বৃষ্টি হবে। তবে গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গ এবং দক্ষিণবঙ্গের পশ্চিমাঞ্চলের জেলাগুলিতে এর প্রভাব থাকবে সবচেয়ে বেশি। নিম্নচাপের ফলে উত্তাল হতে পারে সমুদ্র। বৃষ্টি সঙ্গে সঙ্গে ৪০ থেকে ৫০ কিলোমিটার বেগে বইতে পারে ঝোড়ো হাওয়া। সতর্কতার খাতিরে তাই বৃহস্পতিবার পর্যন্ত মৎস্যজীবীদের সমুদ্রে যেতে বারণ করা হয়েছে। আলিপুর জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার পর্যন্ত চলবে দুর্যোগ। তারপর হয়তো আবহাওয়ার উন্নতি হতে পারে। একাধিক জেলায় জারি হয়েছে সতর্কতা। দক্ষিণবঙ্গের পাশাপাশি বৃষ্টি চলবে উত্তরেও। দার্জিলিং, জলপাইগুড়ি, আলিপুরদুয়ার, কোচবিহার এবং কালিম্পঙে আজ এবং কাল বিক্ষিপ্ত ভাবে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া দফতর। আর মালদা এবং উত্তর ও দক্ষিণ দিনাজপুরে আগামীকাল পর্যন্ত বিক্ষিপ্ত ভাবে মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

এদিকে এদিন শহর কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৭.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে ১ ডিগ্রি বেশি। সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৭.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে ৫ ডিগ্রি বেশি। বাতাসে আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ ৫৫ থেকে ৯৫ শতাংশ।  গত কয়েকদিন চরম আর্দ্রতার কারণে ভ্যাপসা গুমোট গরমে হাঁসফাঁস করেছেন শহরবাসী। আপাতত আর্দ্রতাজনিত সেই অস্বস্তি কাটতে চলেছে বলেই অনুমান করছেন আবহবিদরা।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only