মঙ্গলবার, ৪ আগস্ট, ২০২০

পঞ্জাব বিষমদকাণ্ড, মৃত শতাধিক


পুবের কলম ওয়েব ডেস্কঃ   পঞ্জাবে বিষ মদ খেয়ে মৃত্যু হল ১০৫ জনের।  আরও বেশ কয়েকজন গুরুতর অসুস্থ। ঘটনায় ম্যাজিস্ট্রেট পর্যায়ের তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী অমরেন্দ্র সিং। মদের ঠেক ভাঙার অভিযান শুরু হয়েছে। অমরেন্দ্র সিংহ ট্যুইট করেন,‘বিষমদে মৃত্যুর ঘটনায় ম্যাজিস্ট্রেট পর্যায়ের তদন্তের নির্দেশ দিয়েছি। জলন্ধর ডিভিশনের কমিশনার এই তদন্ত পরিচালনা করবেন। সংশ্লিষ্ট জেলাগুলির এসএসপি এবং অন্য প্রশাসনিক আধিকারিকরা তাঁকে সহায়তা করবেন। দোষীদের রেহাই মিলবে না।’
ইতিমধ্যে অমৃতসরের মুছাল গ্রাম থেকে বলবিন্দর কউর নামে একজনকে গ্রেফতার করেছে। স্থানীয বাসিন্দাদের অভিযোগ, পুলিশের সঙ্গে যোগসাজশেই এলাকায় চোলাই মদের কারবার চলছে দীর্ঘদিন ধরে। 
পঞ্জাবের ডিজিপি দীপঙ্কর গুপ্তা জানিয়েছেন,প্রথমে গত ২৯ জুলাই রাতে অমৃতসরের দুটি গ্রাম থেকে বিষমদ খেয়ে ৫ জনের মৃত্যুর খবর আসে। তারপর মৃতের সংখ্যা বাড়তে শুরু করে। রবিবার রাতে তা বেড়ে ১০৫ হয়ে যায়।
পুলিশের এক আধিকারিক জানান,বেশিরভাগ পরিবারই সামনে আসছে না। তাঁরা কোনও অ্যাকশন নেওয়া হোক সেটা চাইছে না। অনেকেই আবার পোস্টমর্টেমও করতে দিচ্ছে না। অনেক আক্রান্তের পরিবার বয়ান দায়ের করার জন্য আসছে না। কিন্তু পুলিশ বারবার তাঁদের সহযোগিতা করার জন্য অনুরোধ করে চলেছে। আর এর মধ্যে গুরুদাসপুরের জেলাশাসক মুহাম্মদ ইসফাক বলেন,অনেক পরিবার এটাই স্বীকার করছে না যে– তাঁদের পরিজনের মৃতু্য বিষাক্ত মদ খেয়ে হয়েছে। তাঁরা বলছে– তাঁদের পরিজনের মৃতু্য হ*দরোগে আক্রান্ত হয়ে হয়েছে। পঞ্জাবের প্রধান বিরোধী দল আম আদমি পার্টি ঘটনার সিবিআই তদন্তের দাবি তুলেছে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only