মঙ্গলবার, ১১ আগস্ট, ২০২০

দশ বছরের শিশু নিখোঁজ , উদ্ধারে তৎপরতার সঙ্গে কাজ করছে পুলিশ ও প্রশাসন


নিজস্ব প্রতিবেদক, মোথাবাড়ি:  এক তৃণমূল পঞ্চায়েত সদস্যের একমাত্র পুত্র   চতুর্থ শ্রেণির ছাত্র নিখোঁজের ঘটনায় চাঞ্চল্য মোথাবাড়ি থানা এলাকায়। নিখোঁজ হওয়ার কয়েক ঘন্টা বাদেই উড়োফোনে ৫০ লক্ষ টাকা মুক্তিপণ চেয়ে ফোন  আসে। 

এদিকে  পুত্র সন্তান নিখোঁজ হওয়ার পর  পুলিশ তৎপরতার সঙ্গে খোঁজার চেষ্টা চালাচ্ছে। নিখোঁজ হওয়া শিশু বছর দশেকের ওমর ফারুক। সে একটি বেসরকারি নার্সারি স্কুলের চতুর্থ শ্রেণির ছাত্র। কালিয়াচক-২ ব্লকের মোথাবাড়ি গ্রাম পঞ্চায়েতের আমলিতলা গ্রামে বাড়ি তার। জানা গেছে, গত ৯ আগস্ট রাত ৮টা নাগাদ শিশুটি নিখোঁজ হয়। এক পড়শির বাড়িতে বিয়ের অনুষ্ঠানে ছিল সে। তারপর আর বাড়িতে আসে নি। পরে খোঁজাখুঁজি শুরু হলে ওই দিনই রাত ১১টা নাগাদ একটি উড়োফোনে ৫০ লক্ষ টাকা মুক্তপণ চেয়ে ফোন আসে। শিশুটি তাদের কাছে রয়েছে  সেটাও জানানো হয়। । শিশুটির বাবা হাফিজুল ইসলাম সংশ্লিষ্ট পঞ্চায়েত এলাকার তৃণমূল নেতা। ছেলের নিখোঁজের কথা জানিয়ে তিনি মোথাবাড়ি থানায় লিখিত অভিযোগ জানান। মোথাবাড়ি গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান নিলুফা ইয়াসমিন জানান, আমাদের এক  পঞ্চায়েত সদস্যের  ছেলে নিখোঁজ হয়েছে। শুনেছি তাকে অপহরণ করে মুক্তিপণ চাওয়া হয়েছে। পুলিশকে বিষয়টি জানানো হয়েছে। পুলিশ  তৎপরতা ও নিষ্ঠার সঙ্গে  নিরলস  কাজ করছে।স্থানীয় তৃণমূল ব্লকনেতা  আসাদুল আহমেদ বলেন,শিশুটি ২ দিন ধরে নিখোঁজ। তার খোঁজ চলছে। আশাকরি দ্রুত উদ্ধার হবে   শিশু।    অতিরিক্ত পুলিশ সুপার  (গ্রামীণ)দীপক সরকার জানান,  এক শিশু নিখোঁজ  হয়েছে।  খোঁজ চলছে শিশুটির।পুলিশ প্রশাসন উদ্ধারে তৎপর রয়েছে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only