মঙ্গলবার, ৪ আগস্ট, ২০২০

সীমান্তে বিএসএফ ক্যাপে দুই সঙ্গীর ওপর গুলি চালালেন জওয়ান!


পুবের কলম ওয়েব ডেস্ক: দুই সঙ্গীর ওপর গুলি চালিয়ে পরক্ষণে কমান্ডারের কাছে আত্মসমর্পণ করলেন এক বিএসএফ জওয়ান। ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার তিনটে নাগাদ উত্তর দিনাজপুর জেলার রায়গঞ্জ থানার ভারত-বাংলাদেশ মালদাখণ্ড সীমান্তে অবস্থিত ১৪৬ নম্বর ব্যাটালিয়নের ক্যাম্পে।

জানা গিয়েছে, অভিযুক্ত জওয়ানের নাম উত্তম সূত্রধর। এদিন ক্যাম্পে থেকে হঠাৎ গুলি চালানোর শব্দ শোনা যায়। এর অল্প সময়ের মধ্যে নিজেই কমান্ডারের কাছে আত্মসমর্পণ করেন উত্তম।

পরে ক্যাম্প থেকে বিএসএফ ইন্সপেক্টর মহিন্দর সিং ভাট্টি ও কনস্টেবল অনুজ কুমারের রক্তাক্ত দেহ উদ্ধার করা হয়। দেহগুলি ময়না তদন্তের জন্য পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, রায়গঞ্জ থানার ভাতুন গ্রামপঞ্চায়েতের ভারত- বাংলাদেশ সীমান্ত এলাকার মালদাখন্ড সীমান্ত চৌকির বর্ডার রোডে চৌকির কাজে যুক্ত ছিলেন বিএসএফ এর ইন্সপেক্টর মহিন্দর সিং ভাট্টি, কনস্টেবল অনুজ কুমার এবং বিএসএফ জওয়ান উত্তম সূত্রধর। সোমবার রাতে তাঁরা সীমান্ত প্রহরায় দায়িত্বে ছিলেন। মঙ্গলবার ভোররাতে সাড়ে তিনটে নাগাদ আচমকাই বিএসএফ জওয়ান উত্তম সূত্রধর তার স্বয়ংক্রিয় রাইফেল থেকে অপর দুজনকে লক্ষ্য করে এলোপাথাড়ি গুলি ছুঁড়তে থাকে। সীমান্তেই ঘটনাস্থলে গুলিবিদ্ধ হয়ে মৃত্যু হয় বিএসএফ ইন্সপেক্টর মহিন্দর সিং ভাট্টি ও কনস্টেবল অনুজ কুমারের।

এই ঘটনার উচ্চ পর্যায়ের তদন্ত শুরু করেছে বিএসএফ কর্তৃপক্ষ। রায়গঞ্জ পুলিশ জেলার পুলিশ সুপার সুমিত কুমার জানিয়েছেন, রায়গঞ্জ থানার বিএসএফ এর ১৪৬ নম্বর ব্যাটালিয়নের মালদাখন্ড সীমান্ত চৌকির ঘটনায় গুলিবিদ্ধ জওয়ানদের মৃতদেহ উদ্ধারে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছেছে। কেন জওয়ান গুলি করে তাদের হত্যা করল, তা জানতে তদন্ত শুরু করা হয়েছে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only