সোমবার, ১৭ আগস্ট, ২০২০

কারচুপি করে জিতেছেন প্রেসিডেন্ট লুকাশেঙ্কো? প্রতিবাদে উত্তাল বেলারুশ, বিস্তারিত পড়ুন


পুবের কলম ওয়েব ডেস্ক: নির্বাচনে ব্যাপক কারচুপি করে ক্ষমতা আঁকড়ে রয়েছেন প্রেসিডেন্ট আলেকজান্ডার লুকাশেঙ্কো। এই অভিযোগে প্রতিবাদে রাজধানী মিনস্ক শহরে লাখো মানুষের সমাবেশ দেখা গেল রবিবার। পূর্ব ইউরোপের দেশটির ইতিহাসে এতবড় ঐতিহাসিক জমায়েত আগে কখনো হয়নি।

বিপাকে পড়ে দেশবাসীকে সান্ত্বনা দিয়ে প্রেসিডেন্ট লুকাশেঙ্কো সোমবার কিছুটা নরম সুরে বলেন, ক্ষমতার বিকেন্দ্রিকরণের লক্ষ্যে সংবিধান সংশোধন করতে রাজি। সেই কাজ ইতিমধ্যেই শুরু হয়েছে। মিনস্কে পালটা সমাবেশ করে বিক্ষোভকারীদের উদ্দেশ্যে প্রচ্ছন্ন হুমকির সুরে বলেন, কিন্তু কোনও চাপের কাছে মাথানত করব না বলে সমঝে দেন। 

৯ আগস্ট দেশটিতে নির্বাচন হয়। তাতেই পুনরায় জয়ী হন লুকাশেঙ্কো। সে কথা স্মরণ করিয়ে দিয়ে বলেন, আমাকে মেরে ফেললেও পুনর্নির্বাচন হবে না। বিরোধীরা তাঁর পদত্যাগের দাবিতেই ১০দিন ধরে লাগাতার বিক্ষোভ চালাচ্ছেন। তাঁদের দাবি, পদত্যাগ করে বিরোধী দলনেতা স্টেভলানা টিখানোভস্কায়ার হাতে ক্ষমতা ছাড়তে হবে। এমনিতেই ২৬ বছর ক্ষমতায় রয়েছেন প্রেসিডেন্ট লুকাশেঙ্কো। ৯ তারিখের নির্বাচনী ফলাফলে দেখা যায় লুকাশেঙ্কা ৮০ এবং স্টেভলানা মাত্র ১০ শতাংশ ভোট পেয়েছেন।

 রবিবার বিক্ষোভে ২ লক্ষাধিক মানুষের জমায়েত হলেও সোমবার লুকাশেঙ্কোর পালটা সমাবেশে মাত্র হাজার পাঁচেক মানুষের ভিড় হয়। বিক্ষোভকারীদের নিরস্ত করতে পুলিশ ব্যাপক নির্যাতন ও ধরপাকড় চালাচ্ছে। এমতাবস্থায় লুকাশেঙ্কোর পাশে দাঁড়িয়েছে রাশিয়া। বিরোধীদের বক্তব্য, বিদেশি হস্তক্ষেপ বরদাস্ত করা হবে না। যদিও লুকাশেঙ্কো বিদেশি সহায়তা বা মধ্যস্থতার অভিযোগ স্বীকার করেননি। 


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only