মঙ্গলবার, ১৮ আগস্ট, ২০২০

মসজিদে মিউজিক ভিডিয়ো শুটিং, এফআইআর পাক অভিনেত্রী ও গায়কের বিরুদ্ধে, বিস্তারিত পড়ুন


পুবের কলম ওয়েব ডেস্ক: মসজিদের ভিতর মিউজিক ভিডিয়োর শুটিং করে আইনি ঝামেলায় জড়ালেন পাকিস্তানের এক অভিনেত্রী ও গায়ক। আইনজীবী সর্দার ফারহাত মনজুর খানের অভিযোগের ভিত্তিতে লাহোর পুলিশ অভিনেত্রী সাবাহাত কামার জামান এবং গায়ক বিলাল সাঈদের নামে এফআইআর করেছে। অভিযোগে তিনি বলেন, লাহোরের ওয়াজির খান মসজিদের ভিতরে ভিডিয়ো শুট করে মসজিদের পবিত্রতা নষ্ট করা হয়েছে। একইসঙ্গে পাকিস্তানের মুসলিমদের ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত করা হয়েছে। মুসলিম হয়েও যারা এই জঘন্য কাজ করেছেন,তাঁদের কঠোর সাজা হওয়া উচিত বলে পুলিশ-প্রশাসনের কাছে জোরালো দাবি জানিয়েছেন অভিযোগকারী আইনজীবী। একইসঙ্গে ওই ন্যক্কারজনক কাজে অনুমোদন দেওয়ায় মসজিদ পরিচালন কমিটির কর্মকর্তাদেরকে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেওয়ার আর্জিও জানিয়েছেন ফারহাত।

উল্লেখ্য, পাকিস্তানি অভিনেত্রী সাবাহাত কামার জামান ভারতের বলিউডেও সিনেমা করেছেন। ইরফান খানের সঙ্গে হিন্দি সিনেমা মন্ত-এ নায়িকা ছিলেন। এদেশে সাবা কামার নামে পরিচিত তিনি। অন্যদিকে পবিত্র মসজিদে শুটিংয়ের বিষয়টি নিয়ে লাহোর সহ পাকিস্তানের বিভিন্ন জায়গায় হইচই শুরু হওয়ায় সোশ্যাল মিডিয়ায় দুঃখ প্রকাশ করে ক্ষমা চেয়েছেন শাবাহাত-বিলাল জুটি। এদিকে সোশ্যাল মিডিয়ায় বিষয়টি ভাইরাল হলে অনেকেই দাবি তোলেন, ঘটনাটিকে ধর্ম অবমাননা হিসেবে গণ্য করে ওই অভিনেত্রী ও গায়কের বিরুদ্ধে স্বতপ্রণোদিত মামলা করুক আদালত। সেক্ষেত্রে পাকিস্তানে ব্লাসফেমি বা ধর্মীয় অবমাননা আইনে সর্বোচ্চ ১০ বছর পর্যন্ত জেল-জরিমানা হতে পারে। 

উল্লেখ্য, ভিডিয়োটির ডাইরেক্টরও ছিলেন বিলাল। তাঁর কথায়, অনেকেই বিষয়টি নিয়ে ভুল বুঝেছেন। তাঁরা ভেবেছেন, আমরা কোনও নাচের দৃশ্য শুটিং করেছি। বিলালের দাবি, তাদের শুটিংয়ে নাচের কোনও দৃশ্য ছিল না। ‘কবুল’ নামে মিউজিক ভিডিয়োটি ১২ আগস্ট রিলিজড হয়।    

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only