শনিবার, ২৯ আগস্ট, ২০২০

অনন্য নজির, মসজিদ থেকে সব ধর্মের মা ও শিশুর সম্পূর্ণ বিনামূল্যে চিকিৎসা, বিস্তারিত পড়ুন



পুবের কলম ওয়েব ডেস্ক: প্রার্থনা এবং চিকিৎসা দু’টোই চলবে একসঙ্গে। একই পরিসরে। পাঁচ ওয়াক্ত নামাযের জন্য নির্দিষ্ট জায়গা রেূে মসজিদের বাকি পরিসরে চলবে মা ও শিশুদের জন্য বিশেষ চিকিৎসা পরিষেবা। তেলেঙ্গানার রাজধানী প্রাচীন শহর হায়দরাবাদের বহু প্রাচীন একটি মসজিদে এমনই ব্যবস্থা অঞল। ইবাদতের পাশাপাশি মানব সেবার এমন অনন্য নজির খুব একটা দেখা যায় না। মসজিদে নামায পড়তে যাবেন মুসলমানরা। আবার সেই মসজিদেই সব ধর্মের মানুষের অবাধ প্রবেশ সম্পূর্ণ বিনামূল্যে চিকিৎসা পরিষেবা পেতে। মসজিদের এই ফ্রি ক্লিনিকে কেবল চিকিৎসা নয়, বিনামূল্যে প্যাথলজি ও ল্যাবরেটরি টেস্টেরও ব্যবস্থা হয়েছে।

তবে মসজিদের ক্লিনিকে চিকিৎসা হবে কেবল মা ও শিশুদের। আমেরিকার এসইইডি নামের সংস্থার অর্থানুকূল্যে হায়দরাবাদের স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা হেল্পিং হ্যান্ড ফাউন্ডেশনের সঙ্গে গাঁট ছড়া বেধে মসজিদেই খোলা হয়েছে এই ‘মাদার অ্যান্ড চাইল্ড ক্লিনিক’। সেখানে একেবারে বিনামূল্যে চিকিৎসা ও প্যাথলজি পরীক্ষার সুবিধা পাবেন সব ধর্মের প্রসূতি, মা ও শিশুরা। এখানেই শেষ নয়, এই মসজিদ-ক্লিনিক থেকেই প্রতিদিন ১০ বছর পর্যন্ত শিশুদের বিনামূল্যে দুপুরের খাবার দেওয়া হবে।


মসজিদ কমিটির তরফে জানা গেছে, এই ক্লিনিকে থাকছে নেবুলাইজেশনের ব্যবস্থা। অর্থাৎ শ্বাসকষ্টের রোগীরা বিশেষ চিকিৎসার সুযোগ পাবে। এ ছাড়া ড্রেসিং এবং ইঞ্জেকশন দেওয়ারও ব্যবস্থা রয়েছে। হায়দরাবাদের রাজেন্দ্র নগর মণ্ডলের এম এম পাহাদি, সুলেইমান নগর, চিন্তালমেট, ভোপালনগর, হাসাননগর,এনটিআর নগর সহ ৩১টি বস্তির প্রায় পাঁচ লক্ষ মানুষ এই ক্লিনিকে চিকিৎসার সুযোগ পাবেন। মসজিদ কমিটির অন্যতম প্রধান মুজতবা হাসান আসকারি জানিয়েছেন– এলাকার গর্ভবতী মহিলাদের যাবতীয় চিকিৎসা, সুষম খাবার এবং সব ধরনের ওষুধ ক্লিনিক থেকে সম্পূর্ণ বিনামূল্যে দেওয়া হবে।

যদিও বর্তমানে কোভিড পরিস্থিতিতে করোনা বিধি মেনেই মহিলাদের দ্বারা ক্লিনিকটি রয়েছেন একজন জেনারেল ফিজিশিয়ান, একজন শিশুরোগ বিশেষজ্ঞ,দণ্ড চিকিৎসক, স্ত্রী রোগ বিশেষজ্ঞ, ডায়েটিশিয়ান এবং প্রশিক্ষিত নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীরা। যদিও এই ক্লিনিকে দেওয়া হবে প্রাথমিক পর্যায়ের চিকিৎসা পরিষেবা। কোনও রোগীর অবস্থা খারাপ হলে সেক্ষেত্রে অন্য সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করার ব্যবস্থা করে দেওয়া হবে। এখন করোনা পরিস্থিতিতে ক্লিনিকে আসা প্রত্যেককে হাত স্যানিটাইজ করার পর শরীরের তাপমাত্রা এবং অক্সিজেন মাত্রা মেপে দেখা হচ্ছে। নামাযের পাশাপাশিই এমন মানবসেবার নজির বিশেষ দেখা যায় না। অনেকেই বলছেন হায়দরাবাদের প্রাচীন মসজিদের এই সর্বধর্ম জনসেবার উধ্যোগ দেশের অন্যান্য ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানকে সেবার পথ দেখাবে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only