বৃহস্পতিবার, ২৭ আগস্ট, ২০২০

ফেসবুক শুনানির আগে কোনও তথ্য প্রকাশ নয় মিডিয়ায়, সতর্কবার্তা বেঙ্কাইয়ার, বিস্তারিত জানুন

 


পুবের কলম ওয়েব ডেস্ক: প্যানেল মিটিং সংক্রান্ত গোপন তথ্য গণমাধ্যমকে না দিতে পার্লামেন্টারি স্ট্যান্ডিং কমিটির পদাধিকারী ও সদস্যদের কাছে আবেদন করলেন রাজ্যসভার চেয়ারম্যান বেঙ্কাইয়া নাইডু। ফেসবুক কর্মকর্তাদের সঙ্গে তথ্য প্রযুক্তি বিষয়ক কমিটির বৈঠকের কয়েকদিন আগে নাইডুর এই নির্দেশ এল। ফেসবুকের বিরুদ্ধে অভিযোগ, বিজেপি ও দক্ষিণপন্থী নেতাদের উস্কানিমূলক আপত্তিকর ও বিদ্বেষমূলক মন্তব্যের ব্যাপারে ফেসবুক কোনও পদক্ষেপ নেয়নি। বরং ব্যবসায়িক স্বার্থে তারা উদাসীনতা দেখিয়ে সোশ্যাল মিডিয়া থেকে সেই বিতর্কিত মন্তব্য সরিয়ে ফেলেনি। এর ফলে ঘটে গিয়েছে বহু সাম্প্রদায়িক অস্থিরতা। 

আরও অভিযোগ, ফেসবুক বিজেপির হয়ে কাজ করে গিয়েছে। ফেসবুকের ভারতীয় প্রধান আঁখি দাসের রাজনৈতিক অবস্থানের ব্যাপারেও উঠেছে প্রশ্ন। এই প্যানেলের প্রধানকে লেখা চিঠিতে নাইডু জানিয়েছেন, কমিটির কার্যকলাপ বা বিচারবিভাগীয় বিল সম্পর্কে মিডিয়া নানা জনের মন্তব্য উদ্ধৃত করছে। 

তিনি লিখেছেন,''কমিটির কাজকর্ম গোপনীয় এবং এই কমিটির সঙ্গে সম্পর্কিত কারও এই বিষয়ে কোনও তথ্য সরাসরি বা পরোক্ষভাবে মিডিয়াকে দেওয়ার অনুমতি নেই।'' যতদিন না এই প্যানেলের রিপোর্ট সংসদে জমা দেওয়া না হয় ততদিন এই ব্যাপারে কোনও তথ্য পাচার কার্যত সংসদীয় বিধি ভঙ্গের সামিল। এমনটাই জানিয়েছেন তিনি। লোকসভার স্পিকার ওম বিড়লাও কমিটির চেয়ারপার্সনকে প্যানেলের মিটিঙের গোপনীয়তা রক্ষার বিষয়ে আবেদন করেছিলেন। এর পরই নাইডুর এই নির্দেশ। 

নাইডুর এই চিঠি নানা দিক থেকে গুরুত্বপূর্ণ কারণ পাবলিক অ্যাকাউন্টস কমিটি (পিএসি) ও পার্লামেন্টারি স্ট্যান্ডিং কমিটির চেয়ারম্যান কংগ্রেসের। কমিটির আলোচনার বিষয় কী হবে তাই নিয়ে বিজেপির সঙ্গে এরই মধ্যে কংগ্রেসের সংঘাত চরমে উঠেছে। নাইডুর নিশানায় তথ্যপ্রযুক্তি প্যানেলের প্রধান কংগ্রেসের নেতা শশী থারুর, তা অনুমেয়। বিজেপি নেতাদের অভিযোগ, প্যানেলের সদস্যদের সঙ্গে আলোচনা না করেই ফেসবুককে ডাকার ইচ্ছার কথা ট্যুইট করে জানিয়েছিলেন শশী।  কিন্তু প্রশ্ন হল, এত গোপনীয়তা কেন?

 

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only