শুক্রবার, ৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০

বিশেষজ্ঞ কমিটির ঘোষণা অন‍ুযায়ী রাজ্যের ২৭ সেতুকে বিপজ্জনক, দ্র‍ুত ভেঙে ফলার নির্দেশ



পুবের কলম প্রতিবেদকঃ মাঝেরহাট ব্রিজ ভেঙে পড়ার পরে অন্যান্য ব্রিজের স্বাস্থ্য পরীক্ষা শুরু হয় রাজ্যে। এই স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য বিশেষজ্ঞ কমিটিও গড়ে রাজ্য সরকার। সম্প্রতি সেই বিশেষজ্ঞ কমিটি রাজ্যের বিভিন্ন জেলার ২৭টি সেতুকে বিপজ্জনক হিসাবে চিহ্নিত করে তা ভেঙে ফেলার পরামর্শ দিয়েছে। এর মধ্যে বেশ কয়েকটি সেতু নদীর উপর থাকায় দ্রুত সেগুলি নিয়ে ব্যবস্থা নেওয়ার কথাও বলেছে সেতু বিশেষজ্ঞরা। 


বিশেষজ্ঞ কমিটির তরফে জানানো হয়েছে বর্তমান পরিস্থিতিতে এখনই নতুন সেতু নির্মাণ সম্ভব না হলে অবিলম্বে যেন সেগুলি মেরামতের ব্যবস্থা করা। অন্যথায় যানবাহন চলাচলে ঝুঁকি থাকবে বলে সতর্ক বার্তা দেওয়া হয়েছে। সেতু বিশেষজ্ঞ কমিটির এই রিপোর্ট সামনে রেখে পূর্ত সচিব নবীন প্রকাশ ইতিমধ্যেই দফতরের প্রতিটি জোনের ইঞ্জিনিয়ারদের সঙ্গে ভিডিয়ো কনফারেন্সে বৈঠক শুরু করেছেন।


প্রসঙ্গত, মাঝেরহাট ব্রিজ বিপর্যয়ের পরই রাজ্যের প্রতিটি সেতু, উড়ালপুলের স্বাস্থ্য পরীক্ষার পরিকল্পনা নেওয়া হয়। দেশের নামজাদা চারটি সমীক্ষক সংস্থাকে এই কাজে নিয়োগ করা হয়। কলকাতা ও তার সংলগ্ন এলাকার ১৬টি সেতুর সমীক্ষার কাজ শেষ করে রাজ্যকে রিপোর্ট দিয়েছে ব্রিজ বিশেষজ্ঞ কমিটি। 


পাশাপাশি, বিভিন্ন জেলা মিলিয়ে পূর্ত দফতরের অধীন ৩৭২টি সেতুর স্বাস্থ্য পরীক্ষার কাজ শেষ হয়েছে। এর মধ্যে ৩৬৭টি সেতুর রিপোর্ট সরকারের কাছে জমা দেওয়া হয়েছে। ওই রিপোর্টে ২২৩টি ব্রিজের ছোটখাট মেরামতের প্রয়োজন এবং ২৭টি সেতুকে ‘বিপজ্জনক’ হিসাবে চিহ্নিত করে সেগুলি ভেঙে নতুন করে গড়ে তোলার পক্ষে বিশেষজ্ঞরা মত দিয়েছেন। পূর্ত দফতর সূত্রে ‘বিপজ্জনক’ ব্রিজগুলির মধ্যে বীরভূম, মুর্শিদাবাদের বেশ কয়েকটি সেতু ছাড়াও উত্তরবঙ্গের কয়েকটি সেতুও রয়েছে তালিকায়।


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only