মঙ্গলবার, ৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০

ফুরফুরা শরীফের পীর কলিমুল্লাহ সিদ্দিকীর ইন্তেকাল– বুধবার দুপুর ২টায় নামাযে জানাযা


পুবের কলম প্রতিবেদক : ফুরফুরা শরীফের অন্যতম বয়োজ্যেষ্ঠ পীর আল্লামা কলিমুল্লাহ সিদ্দিকী (রহ.) ইন্তেকাল করলেন (ইন্না লিল্লাহি... ...)। সোমবার রাত ১-৩০টা নাগাদ ফুরফুরা দরবার শরীফের নিজ বাড়িতে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৭৯ বছর। তিনি রেখে গেছেন দুই পুত্র, চার কন্যা, স্ত্রী,ভাইবোন-সহ অগণিত ভক্ত-মুরিদ। বুধবার দুপুর ২টায় ফুরফুরা দরবার শরীফে মরহুমের নামাযে জানাযা অনুষ্ঠিত হবে বলে তাঁর পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে। মরহুম পীর সাহেব ধর্ম প্রচারের সঙ্গে সঙ্গে পশ্চিমবাংলা, বাংলাদেশ, অসমের বিভিন্ন প্রান্তে বহু মক্তব,মাদ্রাসা,বিদ্যালয়,মসজিদ প্রতিষ্ঠা করেছেন। ধর্মীয় শিক্ষার পাশাপাশি ব্যবহারিক শিক্ষায় বাংলার ছেলে-মেয়েরা কীভাবে পারদর্শী হয়ে উঠতে পারে সে বিষয়ে তাঁর বিশেষ ভূমিকা ছিল। দেশ তথা রাজ্যে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির বাতাবরণ তৈরির ক্ষেত্রে মরহুম পীর সাহেব সর্বদা তার ভক্তদের অনুপ্রাণিত করতেন। মরহুম পীর কলিমুল্লা সিদ্দিকী প্রচারের আড়ালে থেকে জাতি-ধর্ম-বর্ণ-নির্বিশেষে অসহায়,দরিদ্র,অনাথ মানুষের সঙ্গে সুসম্পর্ক স্থাপন করেছিলেন। 

বিলাসিতার জীবনযাপনের সুযোগ থাকা সত্ত্বেও তিনি অতি সাধারণ ভাবে তাঁর জীবনের ৭৯টা বছর অতিক্রম করেছেন। মরহুমের আন্তরিকতা, বিনয়ী মনোভাব ও সহজ সরল আতিথেয়তা সব ধর্মের মানুষকে আকৃষ্ট করত। তাঁর মৃত্যুসংবাদ শোনার পর অগণিত ভক্ত-মুরিদ গভীর শোকে নিমজ্জিত হন।

মরহুমের জানাযায় অংশ নিতে মঙ্গলবার সকাল থেকেই হাজারে হাজারে ভক্ত-মুরিদ ফুরফুরা দরবার শরীফের অভিমুখে রওনা দিয়েছেন। তবে দরবার শরীফের তরফে আহ্বান জানানো হয় যে তারা যেন সকলেই করোনাজনিত পরিস্থিতির কথা বিবেচনা করে সরকারি নির্দেশ মেনে চলেন।

ফুরফুরা শরীফের পীর আল্লামা কালিমুল্লাহ সিদ্দিকী (রহ.)-এঁর মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন পশ্চিমবঙ্গ সরকারের পরিবহণ ও সেচমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী। তিনি এক শোকবার্তায় জানান" বাংলার মানুষ একজন গুণী মানুষকে হারিয়েছেন। তাঁর মৃত্যুতে আমি শোকাহত। তাঁর পরিবার ও ভক্ত-মুরিদদের সমবেদনা জানাই "। ফুরফুরার পীর সাহেবের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন ‘পুবের কলম’ পত্রিকার সম্পাদক ও রাজ্যসভার প্রাক্তন সাংসদ আহমদ হাসান ইমরান। বাম পরিষদীয় দলের নেতা ড. সুজন চক্রবর্তী সহ স্থানীয় বিধায়ক ও অঞ্চল প্রশাসনের তরফেও মরহুমের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানানো হয়। পশ্চিমবঙ্গ মাদ্রাসা শিক্ষক ও শিক্ষা কর্মী সমিতির মুখপাত্র সৈয়দ সাজ্জাদ হোসেন এক শোকবার্তায় জানান " পীর সাহেবের  মৃত্যুতে বাংলার অপূরণীয় ক্ষতি হল। বাংলার সংখ্যালঘু সমাজ একজন বিজ্ঞ– দিকপাল মানুষকে হারালেন। ফুরফুরা সিলসিলা একজন প্রবীণ আলেমকে হারালেন"। এছাড়াও শোকজ্ঞাপন করেছেন সারা বাংলা সংখ্যালঘু যুব ফেডারেশনের রাজ্য সম্পাদক মুহাম্মদ কামরুজ্জামান সহ বিশিষ্টরা।

(তথ্য সহযোগিতায়:নসিবুদ্দিন সরকার, মুহাম্মদ নুরুল ইসলাম ও রফিকুল হাসান)

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only