বুধবার, ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০

মাস্ক না পরলে শাস্তি হিসেবে খ‍ুড়তে হবে কবর!



জাকার্তা, ১৬ সেপ্টেম্বরঃ মাস্ক না পরলে কিংবা স্বাস্থ্যবিধি না মানলে অভিনব সাজা দেওয়া হচ্ছে ইন্দোনেশিয়ায়। কারণ, অন্যান্য অনেক দেশের মতোই বিশ্বের বৃহত্তম মুসলিম জনবহুল দেশ ইন্দোনেশিয়ায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ঊর্ধ্বমুখী। কিন্তু মানুষ কিছুতেই যেন সচেতন হচ্ছে না। সোশ্যাল ডিসট্যান্সিং মানতে যেন খুব কষ্ট হচ্ছে। বাজারঘাট লোকের ভিড়ে থিকথিক করছে। অনেকের মুখে মাস্কও দেখা যাচ্ছে না। এমতাবস্থায় অতিমারি করোনা মোকাবিলায় বাধ্য হয়েই কড়া সাজার পথে হাঁটল ইন্দোনেশিয়া। 


সরকারি স্বাস্থ্যবিধি বা গাইডলাইন না মানলে কবর খুঁড়তে দেওয়া হচ্ছে। করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃতদের কবর খুঁড়তে দেওয়া হচ্ছে অনেক জায়গায়। জাভা দ্বীপের পূর্বে গ্রেসিক অঞ্চলে ৮ জনকে এই সাজা দিয়েছে প্রশাসন। করোনার ভয়ে অনেক জায়গায় কবর খননকারী লোকের অভাব দেখা দিচ্ছে। তাই কোভিডবিধি ভঙ্গকারীদেরকে সেই কাজে লাগানো হচ্ছে। ইন্দোনেশিয়ায় এ পর্যন্ত ২ লক্ষ ২১ হাজার করোনা রোগি শনাক্ত হয়েছে। মারা গিয়েছেন ৯ হাজারের মতো। এর মধ্যে ডাক্তার, নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মী ২০০-রও বেশি।


দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রকের নিয়মিত বুলেটিনে সোমবার উদ্বেগ প্রকাশ করে বলা হয়েছে, হাসপাতালগুলোতে করোনা রোগির ভিড় উপচে পড়ছে। স্বাস্থ্য পরিষেবা দিতে হিমশিম খাচ্ছেন ডাক্তার, নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীরা। সমাধিস্থলেও স্থান সংকুলান হচ্ছে না। অনেক জায়গায় আবার করোনা আতঙ্কে কবর খোঁড়ার লোক পাওয়া যাচ্ছে না। 


৬ বছর ধরে রাজধানী জাকার্তা শহরের অদূরে পোনদোক র‍্যাঙ্গন গোরস্থানের কেয়ারটেকার রয়েছেন আদাং আলি। তাঁর কথায়, মাত্র ৬ মাস আগে এখানে দৈনিক গড়ে ৪-৫ জনের দাফন হত। এখন এই সংখ্যা হয়েছে ২৫-৩০। তাঁর আশঙ্কা, এভাবে করোনা রোগি বাড়তে থাকলে, চলতি বছরের শেষদিকে শুধুমাত্র এই গোরস্থানেই দৈনিক গড়ে অন্তত ১০০ লাশ দাফন হবে।


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only