রবিবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২০

চীনের মতো অন্য প্রতিবেশিদের সঙ্গেও কথা বলা উচিত : ডা. ফারুক আব্দুল্লাহ

 


পুবের কলম ওয়েব ডেস্ক :  জম্মু-কাশ্মীরের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ও ন্যাশনাল কনফারেন্সের প্রধান ডা. ফারুক আব্দুল্লাহ বলেছেন, যেভাবে চীনের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করা হচ্ছে যে তারা যাতে (লাদাখ থেকে) পিছু হটে যায় সেভাবে আমাদের অন্য প্রতিবেশিদের সঙ্গেও কথা বলা উচিত। শনিবার এভাবে পাকিস্তানের নাম না করে সংসদের নিম্নকক্ষ লোকসভায় বক্তব্য রাখার সময়ে তিনি ওই মন্তব্য করেন।  

সংসদে ডা. ফারুক আব্দুল্লাহ বলেন, ‘সীমান্তে সংঘর্ষ বাড়ছে এবং এরফলে মানুষ মারা যাচ্ছে। ওই পরিস্থিতি থেকে বেরোনোর জন্য যেকোনও রাস্তা প্রয়োজন। চীনের মতো আমাদের অন্য প্রতিবেশিদের সঙ্গেও কথাবার্তা বলা উচিত।’

তিনি বলেন, ‘জম্মু-কাশ্মীরের পরিস্থিতি আজ এমন যে যেখানে উন্নয়ন হওয়া উচিত ছিল কিন্তু সেখানে কোনও অগ্রগতি নেই। আজও আমাদের সন্তান এবং ব্যবসায়ীদের কাছে ৪ জি সুবিধা নেই, যা আমাদের দেশের অন্যান্য জায়গায় রয়েছে। যখন সমস্ত কিছু আজ ইন্টারনেটের মাধ্যমে হয় তখন তারা কীভাবে শিক্ষাগ্রহণ করতে পারে? ভারত উন্নতি করছে, জম্মু-কাশ্মীরের কী উন্নয়ন হওয়া উচিত নয়?’

ডা. ফারুক আব্দুল্লাহ আরও বলেন, আমি খুশি যে সেনাবাহিনী স্বীকার করেছে, শোপিয়ানে ভুলবশত তিন জন নিহত হয়েছিল। আমি আশা করি সরকার এ ক্ষেত্রে ভাল ক্ষতিপূরণ দেবে।

গত ১৮ জুলাই সন্ত্রাসী সন্দেহে সেনাবাহিনীর গুলিতে নিহত হন জম্মু-কাশ্মীরের রাজৌরির বাসিন্দা ইমতিয়াজ আহমেদ, আবরার আহমেদ এবং মুহাম্মাদ ইবরার। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ওই তিন জনের ছবি ছড়িয়ে পড়তেই তাদের পরিবারের লোকজন ওই যুবকদের শনাক্ত করেন। তাঁরা বলেন, কাজের খোঁজে শোপিয়ানে গিয়েছিলেন ওই তিন যুবক। ১৭ জুলাই থেকে তাঁদের সঙ্গে আর যোগাযোগ করা যায়নি। পরের দিন সেনার গুলিতে মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়তেই বিক্ষোভ শুরু হয়। ভুয়ো সংঘর্ষে ওই যুবকদের হত্যা করা হয়েছে বলে দাবি ওঠে। ওই ঘটনার তদন্তে নেমে অবশেষে সম্প্রতি সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে জানানো হয়, শোপিয়ানে ভারতীয় জওয়ানরা যে আর্মড ফোর্সেস স্পেশাল পাওয়ার্স অ্যাক্ট (আফস্পা) লঙ্ঘন করেছেন, প্রাথমিক তদন্তে তা ধরা পড়েছে। দোষী প্রমাণিত হলে অভিযুক্ত জওয়ানদের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে বলেও সেনাবাহিনীর এক কর্মকর্তা জানান। 

সংসদে সেই প্রসঙ্গের জের টেনে ডা. ফারুক আব্দুল্লাহ বলেন, ‘সেনাবাহিনী  মেনে নিয়েছে যে, ভুলবশত শোপিয়ানে ওই যুবকদের হত্যা করা হয়েছে। এতে খুশি আমি। আশাকরি সরকার নিহতদের পরিবারকে প্রাপ্য ক্ষতিপূরণ দেবে।’

কেন্দ্রীয় সরকার গত বছর ৫ আগস্ট জম্মু-কাশ্মীরে সেরাজ্যের বাসিন্দাদের জন্য বিশেষ সুবিধা সম্বলিত ৩৭০ ধারা বাতিল করার পরে ফারুক আব্দুল্লাহকে বন্দি করা হয়। অবশেষে দীর্ঘ প্রায় ৭ মাস পরে তাঁকে মুক্তি দেওয়া হয়। তাঁর মুক্তির দাবিতে ভারতের বিরোধী নেতারা সোচ্চার হওয়ার পরে অবশেষে তাঁকে মুক্তি দেওয়ার নির্দেশ দেয় রাজ্য প্রশাসন। মুক্তি পাওয়ার পরে এই প্রথম তিনি সংসদের চলতি অধিবেশনে যোগ দিয়েছেন।



এপ্রসঙ্গে রোববার যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের সহকারী অধ্যাপক আব্দুল মাতিন পুবের কলমকে বলেন, ‘আমাদের এখানে এখনও পর্যন্ত ট্র্যাক ওয়ার্ল্ড ডিপ্লোম্যাসি। এখনও সেটা আছে, সেটা বন্ধ হয়ে যায়নি। যেসমস্ত প্রতিবেশি দেশ আছে তাদের সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় রেখে ভারতের সুস্থ উন্নয়ন খুব প্রয়োজন। সেটা প্রতিবেশিদের সঙ্গে সম্পর্ক ভালো না রাখলে সম্ভব হয় না। যেভাবে চীনের সঙ্গে বসেছে সেটা ভালো, একইভাবে দক্ষিণ এশিয়ার অন্য রাষ্ট্রগুলোর সঙ্গেও কথা বলা উচিত।’

তিনি বলেন, ‘ভারতে এখনও পর্যন্ত দক্ষিণ এশিয় যে বাণিজ্য তা খুব খারাপ দিকে যাচ্ছে। বেকারত্বের অবস্থা খুব খারাপ। জিডিপি মাইনাসে এত  কঠিনভাবে গেছে যে তা থেকে ফিরে আসতে দেশের সাধারণ মানুষ নিরুপায় হয়ে রয়েছে। দেশের সাধারণ মানুষকে এই মুহূর্তে অর্থনৈতিক ও সুরক্ষায় বাঁচিয়ে রাখতে গেলে আমার মনে হয় ভারত সরকারকে সমস্ত প্রতিবেশি দেশের সঙ্গে আলাদাভাবে সংলাপ শুরু করা উচিত। কথা বলা উচিত।’

‘এই সংলাপ না শুরু করতে পারলে আমাদের অর্থনীতি থেকে শুরু করে, পারস্পারিক যে সম্পর্ক এত খারাপ হয়ে গেছে যে আগামীদিনে আরও খারাপ হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে’ বলেও অধ্যাপক আব্দুল মাতিন মন্তব্য করেন।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only