শুক্রবার, ৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০

‘এলএসি’র পরিস্থিতি নাজুক ও গুরুতর’ চীনের সঙ্গে সীমান্ত সংঘাত ইস্যুতে বললেন ভারতীয় সেনা প্রধান



পুবের কলম, ওয়েব ডেস্ক :  ভারত-চীন সীমান্ত সংঘাত ইস্যুতে ভারতের সেনা প্রধান জেনারেল মনোজ মুকুন্দ নারাভানে বলেছেন, প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখার (এলএসি) পরিস্থিতি কিছুটা নাজুক ও গুরুতর। লাদাখ সফররত জেনারেল নারাভানে আজ ওই মন্তব্য করেছেন। বৃহস্পতিবার জেনারেল নারাভানে সীমান্তের চলমান পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে দু’দিনের লাদাখ সফরে আসেন।  

তিনি বলেন, ‘বর্তমানে এলএসি’র পরিস্থিতি কিছুটা নাজুক এবং গুরুতর, তবে আমরা এই বিষয়ে অবিরত চিন্তাভাবনা করছি। আমাদের সুরক্ষার জন্য, আমরা কিছু সতর্কতামূলক পদক্ষেপ নিয়েছি। আমি আশাকরি স্থিতাবস্থা  বজায় থাকবে।’  

জেনারেল নারাভানে বলেন, ‘আপনারা জানেন যে গত ৩ মাস ধরে পরিস্থিতি নাজুক অবস্থায় ছিল। আমরা স্থিতাবস্থা অক্ষুণ্ণ রাখব। এ নিয়ে বিভিন্নভাবে সংলাপ চলছে। সামরিক স্তরে, কূটনৈতিক স্তরে আলোচনা চলছে। আমরা সম্পূর্ণভাবে বিশ্বাস করি, যে সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে,  সংলাপের মধ্য দিয়ে তা সম্পূর্ণভাবে সমাধান করা যেতে পারে।’  

তিনি বলেন, গতকাল লেহতে পৌঁছানোর পরে আমি বিভিন্নস্থানে  কর্মকর্তাদের সাথে কথা বলেছি এবং পরিস্থিতি খতিয়ে দেখেছি। সেনাদের  মনোবল তুঙ্গে রয়েছে। তারা যেকোনো চ্যালেঞ্জের মোকাবিলা করতে প্রস্তুত। আমি দৃঢ়তার সাথে বলতে পারি যে আমাদের সেনারা কেবল ভারতীয় সেনাবাহিনীই নয়, দেশকেও উজ্জ্বল করবে।

শুক্রবার দু’দিনের লাদাখ সফরের দ্বিতীয় দিনে তাঁর মন্তব্য, ‘প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখায় (এলএসি) উত্তেজনা রয়েছে। সতর্কতামূলক সেনা মোতায়েন করা হয়েছে। আমরা নিশ্চিত, আলোচনার মাধ্যমেই এলএসি পরিস্থিতির সমাধান সম্ভব।’

জেনারেল নারাভানে সম্ভাব্য চীনা হামলা ঠেকাতে ভারতীয় সেনাবাহিনীর প্রস্তুতি খতিয়ে দেখেছেন। এসময়ে গণমাধ্যমে দেওয়া সাক্ষাতকারে তিনি বলেন, ‘এলএসি’তে মোতায়েন সেনা কর্মকর্তা এবং জেসিও’দের (জুনিয়র  কমিশনড অফিসার) সঙ্গে আমার আলোচনা হয়েছে। ভারতীয় জওয়ানদের মনোবল তুঙ্গে। ভারতীয় সেনা যে কোনও চ্যালেঞ্জের মোকাবিলা করতে  প্রস্তুত।’ 

গতকাল (বৃহস্পতিবার) দিল্লিতে এক সংবাদ সম্মেলনে একইভাবে চীনা চ্যালেঞ্জ মোকাবিলার দাবি করেছিলেন, চিফ অফ ডিফেন্স  স্টাফ (সিডিএস) জেনারেল বিপিন রাওয়াত।

গত ১৫ জুন পূর্বলাদাখের গালওয়ান উপত্যকার পেট্রোলিং পয়েন্ট-১৪’র কাছে চীনা সেনার সঙ্গে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে ২০ ভারতীয় সেনার মৃত্যু হয়েছিল। ওই সংঘর্ষে বেশ কিছু জওয়ান আহতও হয়েছিলেন। এরপর থেকে দু’দেশের মধ্যে চরম উত্তেজনা ও সংঘাতের আবহ বিরাজ করছে

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only