শনিবার, ৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০

সুশান্ত সিং রাজপুতের পারিবারিক আইনজীবী সাংবাদিকদের জানালেন একটি চাঞ্চল্যকর তথ্য




রুবাইয়া,৫ সেপ্টেম্বর: সুশান্ত সিং রাজপুত মৃত্যুর ঘটনায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ ব্যুরো (এনসিবি) রিয়া চক্রবর্তীর ভাই শৌভিক চক্রবর্তী এবং প্রয়াত অভিনেতার বাড়ির ম্যানেজার স্যামুয়েল মিরান্ডাকে গ্রেপ্তারের পরে সুশান্ত সিং রাজপুতের পরিবারের আইনজীবী শনিবার অভিযোগ করেন  মুম্বই পুলিশ “খুব বড় কিছু” লুকিয়ে রেখেছে। এনসিবির দ্বারা গ্রেপ্তার হওয়া এটাই প্রমাণ দেয় যে মুম্বই পুলিশ বড় কিছু গোপন করতে চেয়েছিল। স্পষ্টতই, এক্ষেত্রে বেশ কয়েকটি দিক রয়েছে। পরিবার আশা করছে যে আরও সবদিক থেকে বেরিয়ে আসবে রহস্য।অন্যদিকে এনসিবি শুক্রবার রাতে রিয়া চক্রবর্তীর ভাই এবং সুশান্ত সিং রাজপুতের গৃহকর্মী মিরান্দাকে মাদক ওষুধ ও সাইকোট্রপিক সাবস্টেন্সস (এনডিপিএস) আইনের বিভিন্ন ধারায় গ্রেপ্তার করেছে।এনসিবি ছাড়াও কেন্দ্রীয় তদন্ত ব্যুরো (সিবিআই) এবং এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টর (ইডি )ও এই মামলার তদন্ত করছে। উল্লেখ্য সুশান্ত সিং রাজপুত ১৪ জুন 
তার বান্দ্রার  অ্যাপার্টমেন্টে মৃত অবস্থায় পাওয়া গেছে।রিয়ার হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাটের মাধ্যমেই সুশান্তের মৃত্যু তদন্তের মধ্যে মাদক যোগের বিষয়টি সামনে আসে। এই সংক্রান্ত তথ্য ইডির তরফে পাঠানো হয় সিবিআই ও এনসিবি-র কাছে। এর পরে বলিউডে ও মুম্বইয়ের অভিজাত মহলে মাদক যোগের খোঁজে তল্লাশি শুরু করেন এনসিবি-র গোয়েন্দারা। মাদক চক্র খুঁজতে গিয়ে এনসিবি ইতিমধ্যেই জ়ায়িদ ভিলাত্রা ও আব্দুল বাসিত পারিহার নামে দু’জনকে গ্রেফতার করেছে। কাইজান ইব্রাহিম নামে আর এক ব্যক্তিকেও গত কাল থেকে জিজ্ঞাসাবাদ করছেন গোয়েন্দারা।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only