রবিবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২০

কৃষি বিলের বিরুদ্ধে হরিয়ানা-পঞ্জাব সীমান্তে ব্যাপক বিক্ষোভ



আম্বালা, ২০ সেপ্টেম্বরঃ লোকসভার পর রাজ্যসভাতেও পাস হল কৃষি বিল। রাষ্ট্রপতির স্বাক্ষর মিললেই এই বিলটি পরিণত হবে আইনে। তবে তার আগেই তোলপাড় শুরু হয়েছে হরিয়ানা-পঞ্জাবে। হরিয়ানার বিভিন্ন এলাকায় কৃষক বিলের বিরুদ্ধে বিক্ষোভে পথে নেমেছেন হাজার-হাজার কৃষক, তাদের হাতে ধরা প্ল্যাকার্ড। 


অনেক কৃষকই আবার তাদের ট্র্যাক্টরে করে বেরিয়ে পড়েছেন বিলের প্রতিবাদে। পঞ্জাব-হরিয়ানা সীমান্তও বেশ উত্তপ্ত। পঞ্জাব থেকে যুব কংগ্রেসের নেতৃত্বে কৃষকরা এসে আম্বালা-মোহালি হাইওয়ের ব্যারিকেড ভাঙচুর করেন। তাদের র‍ুখতে জলকামান ও কাঁদানে গ্যাস ছোঁড়ে পুলিশ।


এদিকে হরিয়ানার কয়েকটি কৃষক সংগঠন ব্যাপক প্রতিবাদের ডাক দিল রাজ্যজুড়ে নিরাপত্তা আঁটোসাঁটো করার নির্দেশ দেয় হরিয়ানা প্রশাসন। কৃষক সংগঠনগুলোর তরফে জানানো হয়েছিল, দুপুর-১২টা থেকে ৩টে পর্যন্ত জাতীয় সড়ক অবরুদ্ধ করা হবে। প্রতিবেশী রাজ্যে বিক্ষোভের তেজ দেখে দিল্লি সরকারও নিরাপত্তা কর্মীদের সজাগ থাকার নির্দেশ দেয়। 

এই বিল আইনে পরিণত হলে কৃষকদের স্বার্থ ক্ষুন্ন হবে বলে অভিযোগ তুলছেন প্রতিবাদীরা। দিন কয়েক ধরেই কৃষি বিল নিয়ে পঞ্জাব, হরিয়ানাসহ একাধিক রাজ্যে কৃষকরা প্রতিবাদ শুরু করেছেন। সদ্য পাস হওয়া এই বিলের জেরে কৃষকদের তাদের উৎপাদিত ফসল বিক্রির ক্ষেত্রে চূড়ান্ত হয়রানির ম‍ুখে পড়তে হবে বলে অভিযোগ উঠছে। 


রবিবার কৃষি বিল পাসের সময় রাজ্যসভার অধিবেশন কক্ষে প্রবল বিক্ষোভ দেখতে শুরু করেন বিরোধী সাংসদরা। কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে লাগাতার স্লোগান উঠতে থাকে। এমনকি ওয়েলে নেমে এসেও বিক্ষোভ দেখতে শুরু করেন বিরোধি দলের সাংসদরা। ক্ষুব্ধ বিরোধিদের হাতে টুকরো টুকরো হয়ে যায় কৃষি বিলের কপি। এরকম একটা টালমাটাল অবস্থাতেও রাজ্যসভায় ধ্বনিভোটে পাস হয়ে কৃষি বিল। 

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only