মঙ্গলবার, ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০

বিপ্লব দেবের বিরুদ্ধে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করার পর ত্রিপুরায় এক সাংবাদিকের ওপর দুষ্কৃতীদের হামলা, কাঠগড়ায় বিজেপি



আগরতলা, ১৫ সেপ্টেম্বর : ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেবের সমালোচনায় সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেছিলেন। আর তারপর এক সাংবাদিককে বেধড়ক মারধরের অভিযোগ উঠল অজ্ঞাত পরিচয় দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে। আপাতত গুরুতর আহত অবস্থায় রাজধানী আগরতলার একটি হাসপাতালে ভর্তি পরাশর বিশ্বাস নামে ওই সাংবাদিক। জানা গিয়েছে, সম্প্রতি করোনামুক্ত হয়েছেন ওই সাংবাদিক।


ঘটনার সূত্রপাত বিপ্লব দেবের একটি মন্তব্যকে ঘিরে। করোনা মোকাবিলায় ব্যর্থ রাজ্য সরকার!‌  ‘এই খবর প্রকাশ করে সরকারের ভাবমূর্তি নষ্টের অভিযোগ তুলে’ সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে মুখ্যমন্ত্রী বলেছিলেন, এই ধরনের কাজকে ক্ষমা করা হবে না। এদিকে, শুক্রবারই কোভিড কেয়ার সেন্টার থেকে ছুটি পেয়েছিলেন পরাশর। এরপরই সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও পোস্ট করেন তিনি। সেখানে কোভিড মোকাবিলায় রাজ্য সরকারের ব্যর্থতা, কোয়ারেন্টাইন সেন্টারগুলোর অব্যবস্থা-সহ মুখ্যমন্ত্রীর ওই ধরনের বক্তব্য নিয়ে মুখ খোলেন। ভিডিওতেই অনেকে তাঁকে হুমকি দেন। এরপরই শনিবার আম্বাসায় নিজের বাড়িতে আক্রান্ত হন ওই সাংবাদিক। একদল অজ্ঞাতপরিচয় দু্ষ্কৃতী বাড়িতে ঢুকে ব্যাপক মারধর করে পরাশরকে। এরপরই স্থানীয়রা ওই সাংবাদিককে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান।


পরাশর যে সংবাদপত্রে কাজ করেন, সেই সংবাদপত্রের সম্পাদক সুবল দে বলেন, ‘‌মুখ্যমন্ত্রী সাংবাদিকদের হুমকি দেওয়ার একদিন এবং পরাশরের ওই ভিডিও পোস্ট করার ১২ ঘণ্টার মধ্যে তাঁর উপর এই আক্রমণ হল। আমাদের মনে হয়, এই আক্রমণের পিছনে বিজেপি কর্মীদেরই হাত রয়েছে।‌’ যদিও ত্রিপুরা রাজ্য বিজেপি-র পক্ষ থেকে সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করা হয়েছে। এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘‌একজন সাংবাদিকের উপর এই ধরনের আক্রমণ খুবই নিন্দনীয়। তবে আমাদের দলের কেউ এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত নয়। পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে। দোষীরা যে দলেরই হোক না কেন, অবশ্যই শাস্তি পাবে।’

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only