শনিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০

সংকল্পের আওতায় পশ্চিমবঙ্গ ২০ কোটি ৭০ লক্ষ ৬০,০০০ টাকা পেয়েছে



পুবের কলম ওয়েব ডেস্ক:জাতীয় দক্ষতা বিকাশ মিশনকে বাস্তবায়িত করার জন্য কেন্দ্র, স্কিল অ্যাকুইজিশন অ্যান্ড নলেজ অ্যাওয়ারনেস ফর লাইভলিহুড প্রমোশন (সংকল্প) কর্মসূচী চালু করেছে। দক্ষতা বিকাশ ঘটানো এবং দক্ষ কর্মীদের চাকুরির বাজারে প্রাসঙ্গিক করে তোলাই স্বল্পমেয়াদী এই প্রশিক্ষণের অঙ্গ।

সংকল্পের তিনটি পর্যায় রয়েছে-

১) কেন্দ্রীয়, রাজ্য ও জেলাস্তরে প্রতিষ্ঠানগুলিকে উন্নত করতে সাহায্য করা।

২) দক্ষতা বিকাশ কর্মসূচীর গুণমান নিশ্চিত করা এবং

৩) প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর মানুষকে দক্ষতা বিকাশ কর্মসূচীর সঙ্গে যুক্ত করা।

অন্যান্য দক্ষতা বিকাশ কর্মসূচীর সঙ্গে সংকল্পের মূল পার্থক্য হল, এখানে প্রশিক্ষণের পাশাপাশি, বিভিন্ন ক্ষেত্রের চাহিদা অনুসারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হয়। গত তিন বছরে পশ্চিমবঙ্গ, বিহার, গুজরাট-সহ ৩০টি রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে এই প্রকল্পের জন্য ২৩৭ কোটি ২ লক্ষ টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে। এর মধ্যে ২৮টি জেলা এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলকে রাজ্য উৎসাহদান তহবিলের আওতায় ২৬৩ কোটি ৩২ লক্ষ টাকা দেওয়া হয়েছে। ২৮টি রাজ্যের ১১৭টি জেলার দক্ষতা বিকাশ কর্মসূচীকে উন্নত করতে ১১ কোটি ৭০ লক্ষ টাকা দেওয়া হয়েছে।

পূর্ব ভারতে রাজ্য উৎসাহ তহবিলের প্রেক্ষিতে বিহারকে ২৪ কোটি ৭৬ লক্ষ ৭৭ হাজার ৬০০ টাকা দেওয়া হয়েছে। এর পরই রয়েছে পশ্চিমবঙ্গ। এই রাজ্য পেয়েছে ২০ কোটি ৭০ লক্ষ ৬০,০০০ টাকা। পশ্চিমবঙ্গের উচ্চাকাঙ্খী জেলাগুলির জন্য জীবিকা বিকাশের খাতে ৫০ লক্ষ টাকা দেওয়া হয়েছে। বিহারে এই খাতে ১ কোটি ৩০ লক্ষ টাকা দেওয়া হয়েছে। ত্রিপুরাকে রাজ্য উৎসাহ তহবিলের জন্য ২ কোটি ১৬ লক্ষ ৭২ হাজার টাকা দেওয়া হয়েছে। এই রাজ্যের উচ্চাকাঙ্খী জেলাগুলির জন্য ১০ লক্ষ টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে। অসমে রাজ্য উৎসাহ তহবিলে ৮ কোটি ৮৪ লক্ষ টাকা এবং উচ্চাকাঙ্খী জেলাগুলির জন্য ৭০ লক্ষ টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে।

সম্প্রতি লোকসভায় এই তথ্য জানিয়েছেন, কেন্দ্রীয় দক্ষতা বিকাশ ও শিল্পোদ্যোগ দপ্তরের প্রতিমন্ত্রী শ্রী আর. কে. সিং।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only