শুক্রবার, ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০

প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অরুণ শৌরির বিরুদ্ধে সিবিআইকে এফআইআরের নির্দেশ আদালতের



যোধপুর, ১৮ সেপ্টেম্বর: অটলবিহারী বাজপেয়ীর আমলে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী থাকা অরুণ শৌরির বিরুদ্ধে সিবিআইকে এফআইআরের নির্দেশ দিল যোধপুরের বিশেষ আদালত। এফআইআরের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে তৎকালীন বিলগ্নীকরণ সচিব প্রদীপ বাইজালের বিরুদ্ধেও। উদয়পুরের একটি আইটিডিসি হোটেল বিক্রি মামলায় করদাতাদের ২৪৪ কোটি টাকা লোকসান হয়েছে বলে অভিযোগ।


ঘটনাটি ২০০২ সালের। সেসময় বাজপেয়ী মন্ত্রিসভার বিলগ্নীকরণ মন্ত্রকের দায়িত্ব ছিল অরুণ শৌরির। সেসময় তাঁর বিরুদ্ধে জলের দরে একটি বিলাসবহুল হোটেল বিক্রির অভিযোগ ওঠে। বিশেষজ্ঞদের ধারণা, রাজস্থানের উদয়নগরের লক্ষ্মী বিলাস প্যালেস হোটেলটির দাম কমবেশি ২৫২ কোটি হওয়া উচিত ছিল। কিন্তু শৌরির দফতর তা বিক্রি করে মাত্র সাড়ে সাত কোটি টাকায়। এত দামি হোটেল এত সস্তায় বিক্রি হল কেন? নেপথ্যে দুর্নীতির গন্ধ পায় বিরোধীরা। শৌরির বিরুদ্ধে তদন্তের দাবি ওঠে। শেষপর্যন্ত এই হোটেল বিক্রিতে দুর্নীতির অভিযোগের তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয় সিবিআইকে।


২০১৯-এর অগাস্টে সিবিআই এই মামলার ক্লোজার রিপোর্ট দাখিল করে। সেই রিপোর্ট বাতিল করে দিয়েছে আদালত। সিবিআইকে তারা মামলাটি নতুন করে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে। লক্ষ্মীবিলাস প্যালেস হোটেলের ইমিডিয়েট অ্যাটাচমেন্টের জন্য উদয়পুরের জেলা শাসককে নির্দেশ দিয়েছে আদালত। যতদিন না মামলা মিটছে, ততদিন এই হোটেল রাজস্থান সরকারের অধীনে থাকবে বলে জানানো হয়েছে।


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ভিন্ন স্বাদের খবর

...
আপনার ক্যাটাগরি নির্বাচন করুন

Whatsapp Button works on Mobile Device only